• ঢাকা
  • শনিবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০

২৫ বছরেও যুক্তরাষ্ট্রের বিমানবন্দরে যুক্ত হয়নি বাংলায় লেখা ‍‍`স্বাগত‍‍`


নিউজ ডেস্ক ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২৪, ১২:৩৫ পিএম
২৫ বছরেও যুক্তরাষ্ট্রের বিমানবন্দরে যুক্ত হয়নি বাংলায় লেখা ‍‍`স্বাগত‍‍`

ঢাকা : ২৫ বছর আগে ২১ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশের শহীদ দিবস আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি পেলেও অনেক ক্ষেত্রে এর মর্যাদা দিতে উদাসীন যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির ১৪৯টি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আজও যুক্ত হয়নি বাংলায় লেখা 'স্বাগত'। এসব বিমানবন্দরের বাহির পথের স্বাগত কেন্দ্রে বিশ্বের প্রায় ১০০ ভাষায় ইংরেজি 'ওয়েলকাম' শব্দের অনুবাদ প্রদর্শিত হলেও নেই শুধু আন্তর্জাতিক মাতৃভাষার স্বীকৃতি পাওয়া বাংলায় 'স্বাগত'। এ ব্যপারে যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্বকারী সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের দায়ী করেছেন প্রবাসীরা।

বিশ্ববাসীর কাছে যুক্তরাষ্ট্রের জনপ্রিয় ও সুপরিচিত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর নিউ ইয়র্কের জন এফ কেনেডি (জেএফকে) এবং সর্ববৃহৎ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের আটলান্টার হার্টসফিল্ড-জ্যাকসনে ঘুরে দেখা গেছে সেখানে ওয়েলকাম সেন্টারে বাংলায় লেখা নেই ‘স্বাগত’।

শুধু নিউ ইয়র্কের জন এফ কেনেডি (জেএফকে) কিংবা আটলান্টার হার্টসফিল্ড-জ্যাকসন বিমানবন্দরই নয়, যুক্তরাষ্ট্রের ১৪৯টি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে একই অবস্থা।

বিশ্বের ১০০ ভাষায় ইংরেজি 'ওয়েলকাম' শব্দের অনুবাদ প্রদর্শিত হয়েছে। কোনো কোনো ভাষায় ওয়েলকাম শব্দের অনুবাদ একাধিকবার ব্যবহার করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের মোট বিমানবন্দরের সংখ্যা ১৯ হাজার ৭০০ এর অধিক। এর মধ্যে ৫ হাজার ১৭০টি সাধারন জনগণের জন্য উন্মুক্ত রয়েছে। এছাড়াও ৫০৩টি বিমানবন্দর রয়েছে শুধুমাত্র ব্যবসায়িক বিমান উঠানামার জন্য।

নিউ ইয়র্কের জন এফ কেনেডি (জেএফকে), লাগার্ডিয়া, নিউ জার্সির নিআর্ক লিবার্টি, বোস্টনের লোগান, ইলিনয়সের শিকাগো ও'হারে, ওয়াশিংটনের সিয়াটলের টাকোমা, ফ্লোরিডার মায়ামি, ফোর্ট লটারডেল, মিনিয়াপলিস সেন্ট পল, ফিলাডেলফিয়া, ওয়াশিংটন ডিসি'র ডুলাস, টেনেসির ন্যাশভিল, ক্যানসাসের উচিতা ডিওয়েট ডি অ্যাসেনহোয়ার,আটলান্টার হার্টসফিল্ড-জ্যাকসন বিমানবন্দর ঘুরে এ প্রতিনিধি কোথাও ওয়েলকাম সেন্টারে খুঁজে পাননি বাংলা লেখা স্বাগত।

এ ব্যাপারে বিমানবন্দরের সংশ্লিষ্ট বিভাগে যোগাযোগ করা হলে নিআর্ক লিবার্টি বিমানবন্দরের ওয়েলকাম সেন্টারের সুপারভাইজার প্যাগি বলেন, বিভিন্ন ভাষায় লেখাযুক্ত নতুন ওয়েলকাম বোর্ডটি গত ১০ বছর আগে বিভিন্ন বিমানবন্দরে লাগানো হয়।

নতুন বোর্ডে বাংলায় স্বাগতম (ইংরেজি ওয়েলকাম) লেখা নেই কেন এমন এক প্রশ্নের জবাবে প্যাগি বলেন, শুধু বেঙ্গলি না, অনেক ভাষাই এখানে বাদ পড়েছে। এর কারণ এত বড় জায়গা সেখানে নেই। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা বাংলায় ‘স্বাগত’ লেখা নেই কেন এ ব্যাপারে তিনি কিছুই জানেন না।

বোস্টনের বাংলাদেশিদের সংগঠন বেইন-এর সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ বেলাল জানান, বোস্টনের লোগান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এখানে মাঝে মধ্যে প্রধানমন্ত্রীও যাতায়াত করে থাকেন। অন্যান্য ভাষায় ওয়েলকাম লেখা আছে কিন্তু বাংলায় স্বাগত নেই এটা অত্যন্ত দুঃখজনক। আমরা সামাজিক সংগঠনের নেতৃত্ব দিই। যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশকে যারা প্রতিনিধিত্ব করেছেন এটা তাদের দায়িত্ব কীভাবে বিমান কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে বিমানবন্দরে স্বাগত শব্দটি বসানো যায়।  

মেডফোর্ড-এর ইসলামিক কালচারাল সেন্টারের সাবেক সভাপতি হুমায়ুন মোর্শেদ জানান, এদেশে বাংলাদেশকে যারা প্রতিনিধিত্ব করছেন তাদের এ বিষয়গুলো খেয়াল রাখা উচিত। আশা করি তারা যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

বোস্টনের বাংলাদেশি ব্যবসায়ী শেখ বাহাউদ্দিন সুমন বলেন, বিষয়টি আমরা জানলেও করার কিছুই নেই। এখানে দেশের প্রতিনিধি যারা রয়েছেন এসব তাদের কাজ। তাই এ বিষয়ে রাষ্ট্রদূতসহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

এমটিআই

Wordbridge School
Link copied!