• ঢাকা
  • রবিবার, ১৬ জুন, ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১

শখ থেকে ভেড়া পালন, বছরে আয় তিন লাখ টাকা


ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২৩, ০১:২৩ পিএম
শখ থেকে ভেড়া পালন, বছরে আয় তিন লাখ টাকা

পাবনা: শখের বসে চার বছর আগে ভেড়া পালন শুরু করেন পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার সাঁড়া ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামের  সাইদুল ইসলাম। আর এ শখই এখন রুপ নিয়েছে বাণিজ্যিক খামারে। বর্তমানে যা থেকে বছরে আসে প্রায় তিন লক্ষ টাকা উপার্জন করছেন তিনি।

খামারি সাইদুলের সাথে কথা বলে জানা যায়, ছোটবেলা থেকেই ভেড়া পালনের শখ ছিল। পূজি সংকট ও ব্যস্ততার কারণে সময় হয়ে উঠেনি তার। তিনি চার বছর আগে তাঁর ইচ্ছে আরও দৃঢ় হয়ে উঠে। তখন দুই টি মহিলা ভেড়া ও  একটি পুরুষ ভেড়া ২ হাজার ৩ শত টাকা দিয়ে কিনে ভেড়া পালনের যাত্রা শুরু করেন তিনি। প্রথম বছর ভেড়াগুলো থেকে বাচ্চা হয় না। তার পরের বছর থেকে মা ভেড়াগুলো বাচ্চা দিতে শুরু করে এবং লাভের মুখ দেখতে পান তিনি। এ শখকে পুঁজি করেই নিজের বাড়িতে গড়ে তোলেন খামার। বর্তমানে তার খামারে ১৪ টি ভেড়া রয়েছে। ভেড়া গুলোর মহিলা ভেড়ার সংখ্যায় বেশি রয়েছে।

এ ভেড়া পালনের জন্য নিজ বাড়ির একটি আধাপাকা ঘর তৈরি করে খামার করেছেন তিনি। তিনি বলেন, এই খামার থেকে গত ঈদুল ফিতর থেকে ঈদুল আজহা পযন্ত ৩০ টি ভেড়া বিক্রি করেন।  তার সংসারে স্ত্রী, ১ ছেলে এবং ১ মেয়ে নিয়ে ৪ জনের সংসারে ভেড়া পালন করে বেশ ভালো ভাবেই চলে যাচ্ছে। 

তিনি আরও বলেন, মা ভেড়া বছরে ২ বার বাচ্চা দেয়। কারো খামারে ২০ টি মা ভেড়ার খামার থাকে তাহলে বছরে প্রায় ৩ লাখ টাকা আয় করা যাবে এবং তা দিয়ে আমার মত ছোট সংসার ডাল ভাত নয়, মাছ,গোস্তো ভাত খেয়ে চলে যাবে। ভেড়া পালন করে অল্প পুঁজিতে অতি সহজেই বেকারত্ব দূর করা যায়।

স্থানীয়রা সাইদুলের এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, তার ভেড়া পালন দেখে অনেক বেকার যুবকও আগ্রহী হতে পারেন এবং ভেড়ার খামার করে বেকারত্ব ঘোচাতে।

ঈশ্বরদী উপজেলা প্রাণীসম্পদ অফিসার মো. নাজমুল হোসাইন জানান, উপজেলা প্রাণীসম্পদ অফিস থেকে খামারিদের চিকিৎসাসহ সকল পরামর্শ দেয়া হয়। অন্যান্য পশুর তুলনায় ভেড়া পালন লাভজনক। এছাড়াও এর মাংসের পরিমান ও স্বাদ অনেক বেশি। তাই আমিষের চাহিদা মেটানোর পাশাপাশি অর্থনৈতিকভাবে ভেড়া পালন অধিক লাভজনক।

সোনালীনিউজ/এসআই/এএ

Wordbridge School
Link copied!