• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

রাজধলা বিলপাড়ে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড়


পূর্বধলা (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি এপ্রিল ১৩, ২০২৪, ০১:৪২ পিএম
রাজধলা বিলপাড়ে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড়

পূর্বধলা: কেউ স্পীড বোটে চড়ছে কেউবা দল বেঁধে মোবাইলে ছবি তুলছে। হাজার হাজার দর্শনার্থীদের ভিড়ে কেউবা ফুচকা চটপটি খাচ্ছে প্রিয়জনের সাথে। পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিন থেকে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে রাজধলা বিলপাড় ও পূর্বধলা সরকারি কলেজের এলাকাজুড়ে। নারী-পুরুষ, শিশু-বৃদ্ধ সব বয়সী মানুষের সমাগম হয় ঈদকে কেন্দ্র করে।

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের আঁধার নেত্রকোণার পূর্বধলা উপজেলার প্রায় ১৩০ একর আয়তন বিশিষ্ট বৃহদাকৃতির নৈস্বর্গিক সৌন্দর্যে ঘেরা ঐতিহ্যবাহী রাজধলা বিল। ভ্রমণপ্রেমীদের জন্যে এক আকর্ষণীয় স্থান। রাজধলা বিল শুধু নামেই একটি ঐতিহ্যবাহী দর্শনীয় স্থান নয়। আবহমান কাল থেকে এর সাথে জড়িত রয়েছে অনেক মজাদার গল্প ও কাহিনী । স্বচ্ছপানি ও মনোরম পরিবেশের কারণে প্রতিদিন এখানে ছুটে আসে ভ্রমণপিপাসু মানুষ। প্রতিদিন অবসর সময় কাটাতে ও পরিবেশকে উপভোগ করতে স্থানীয় অধিবাসীসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা দর্শনার্থীদের পদ চারণায় মুখরিত হয়ে উঠে রাজধলা বিল।

বয়স্ক লোক মুখে শোনা যায়, প্রকৃতির মনোরম পরিবেশের কারণে জমিদারদের একাংশ স্থানান্তরিত হয়ে ধলা বিলের পুর্ব ও দক্ষিণ দিকে বসতি স্থাপন করে। জমিদারদের স্বেচ্ছাচারিতার কারণে বিলের পানি প্রজা সাধারণের ব্যবহার নিষিদ্ধ ছিল।জানা যায়, ধলা শব্দের সঙ্গে সুসং জমিদার পরিবারের বৈবাহিক সূত্রে প্রাপ্ত রাজা উপাধিটা সংযুক্ত হয়ে বিলের নামাকরণ হয় রাজধলা।

ঈদে ঘুরতে আসা দর্শনার্থীরা জানান, এই বিলের বৃহৎ আকৃতি আর নৈসর্গিক সৌন্দর্য আমাদের বিমোহিত করে। এজন্যই যখন সময় পাই তখনই ঘুরতে চলে আসি। তাছাড়া এই বিলের পানি একেক সময় একেক রং ধারণ করে যা সত্যি সবাইকে মুগ্ধ করে।  তবে এর অবকাঠামোর আরো উন্নয়ন হলে, বিশেষ করে শিশুদের আনন্দের জন্যে বিভিন্ন রাইড,খেলনার ব্যবস্থা থাকলে আরো বেশি উপভোগ করতে পারবো।

এমএস

Wordbridge School
Link copied!