• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২২, ৫ মাঘ ১৪২৮

দাবি মেনে নেওয়ায় ছাড়া পেল রাইদার ৪০ বাস


নিজস্ব প্রতিবেদক নভেম্বর ২৯, ২০২১, ০৬:১৯ পিএম
দাবি মেনে নেওয়ায় ছাড়া পেল রাইদার ৪০ বাস

ছবি : সংগৃহীত

ঢাকা : ইম্পেরিয়াল কলেজের এক ছাত্রীকে রাইদা পরিবহনের বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার জেরে প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থীরা রাইদা পরিবহনের ৪০টি বাস প্রগতি সরণির রামপুরা বিটিভি ভবন এলাকায় আটকে রাখেন। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে আটকে রাখা বাস ছেড়ে দেওয়া হয়।

সোমবার (২৯ নভেম্বর) বিকেলে ৪টায় দিকে আটকে রাখা বাসগুলো ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলে ডিএমপির রামপুরা থানা সূত্রে জানা গেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে রামপুরা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘দুপুরের দিকে ইম্পেরিয়াল কলেজের এক ছাত্রী মুগদা থেকে করোনার টিকা নিয়ে রাইদা পরিবহনের একটি বাসে করে বাসায় ফিরছিলেন। রামপুরা পুলিশ বক্সের সামনে নামার সময় তাকে ওই বাসের হেলপার ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় বলে অভিযোগ করেন তিনি।’

‘এ খবর প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে তারা সংঘবদ্ধ হয়ে রামপুরা বিটিভি ভবনের সামনের রাস্তায় অবস্থান নেয় এবং রাইদা পরিবহনের ৪০টি বাস আটকে দেয়। খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনা করি। আলোচনায় অংশ নিতে রাইদা পরিবহনের একজন পরিচালক থানায় আসেন। এ সময় শিক্ষার্থীরা রাইদা পরিবহনের পরিচালকের কাছে বেশ কয়েকটি দাবি উত্থাপন করেন। শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নেওয়ায় আলোচনা শেষে শিক্ষার্থীরা পরিচালকের হাতে প্রায় ৪০টি বাসের চাবি তুলে দেন।’

তিনি বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের দাবির মধ্যে ছিল আজকের ঘটনায় দায়ী হেলপারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে, সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীসহ কোনো যাত্রীর সঙ্গে অশোভন আচরণ করা যাবে না, সকলের কাছ থেকেই ন্যায্য ভাড়া নিতে হবে এবং শিক্ষার্থীদের কাছে হাফ ভাড়া নিতে হবে। এর ব্যত্যয় ঘটলে রাইদা পরিবহন কর্তৃপক্ষ সংশ্লিষ্ট চালক ও হেলপারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ঘটনার প্রথম দিকে আমরা জানতে পেরেছিলাম শিক্ষার্থীরা ১৫টির মতো বাস আটকে রেখেছিল। কিন্তু আলোচনার এক পর্যায়ে শিক্ষার্থীরা জানান, তারা রাইদা পরিবহনের ৪০টির বেশি বাস আটকে রেখেছেন।’

সোনালীনিউজ/এমএস

Haque Milk Chocolate Digestive Biscuit
Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System