• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ৩০ মে, ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

বেওয়ারিশ কুকুরের কামড়ে আহত অর্ধশত


পাবনা প্রতিনিধি মার্চ ২৬, ২০২৩, ১১:৫৪ এএম
বেওয়ারিশ কুকুরের কামড়ে আহত অর্ধশত

পাবনা: পাবনার সাঁথিয়ায় একটি পাগলা কুকুরের কামড়ে পাঁচ গ্রামের অর্ধশত মানুষ আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে শিশু, বৃদ্ধ ও প্রতিবন্ধী রয়েছেন। তাদের সাঁথিয়া হাসপাতাল ও বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এ ঘটনায় এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে। শনিবার (২৫ মার্চ) সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা সাঁথিয়া পৌর সদরের পিপুলিয়া, নওয়ানী, ফকিরপাড়া, কালাইচাড়া ও পূর্বভবানীপুর গ্রামের বাসিন্দা। বিকেল ৪টা পর্যন্ত ৪৫ জনকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করেছে।

আহতদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের নাম-পরিচয় জানা গেছে। তারা হলেন- বাহিরন (৪০), হাদিয়া (১২), মারজিয়া (২৩), রাব্বি (৭), প্রতিবন্ধী সাথী (১৮), শফিক (৯), চম্পা (৪২), নিহারা (৪০), ফারহান (৩), সামিউল (৪), জ্যোতি (আড়াই বছর), চম্পা (৬৫), সোহান (৭), জান্নাতুল (৮), রাহেলা (৮০), জিহাদ (৮) ও প্রতিবন্ধী গোলাম আযম (৩৫)। এদের মধ্যে মারজিয়ার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের ভ্যাকসিন দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।

স্থানীয়রা জানান, সকাল ৮টার দিকে একটি কুকুর হঠাৎ করে যাকেই সামনে পেয়েছে তাকে কামড় দেওয়া শুরু করে। ওই কুকুর এক গ্রাম পেরিয়ে অন্য গ্রামে ঢুকে পড়ে। এভাবে পাঁচ গ্রামের অর্ধশত মানুষকে কামড় দিয়ে আহত করে কুকুরটি। বেশকিছু গরু-ছাগলকেও কুকুরটি কামড়ায় বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। এসময় লোকজন ভয়ে ছোটাছুটি করেন। কেউ কেউ কুকুরটি মেরে ফেলার চেষ্টা করেও তার নাগাল পাননি।

সাঁথিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) আব্দুল্লাহ আল-মামুন বলেন, সকাল সাড়ে ৯টা থেকে হাসপাতালে কুকুরের কামড়ে আহত রোগী আসা শুরু হয়। বিকেল ৪টা পর্যন্ত রোগী এসেছে। তাদের টিকা দিতে হিমশিম খেতে হয়েছে। তারপরও সবাইকে টিকা দেওয়া সম্ভব হয়েছে।

বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত ৪৫ জন রোগী ভ্যাকসিন নিয়েছেন বলে জানান জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাজকিয়া।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ চিকিৎসক ফারুক হোসেন বলেন, কুকুরটি বেশ কয়েকটি গরু ও ছাগলকে কামড়িয়ে আহত করেছে। সেগুলোর প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাসুদ হোসেন বলেন, কেউ যাতে সেবা থেকে বঞ্চিত না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে বলা হয়েছে।

সোনালীনিউজ/এসএইচ/এসআই

Wordbridge School
Link copied!