• ঢাকা
  • শনিবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২৩, ১৫ আশ্বিন ১৪৩০

মেয়রের ভোট বর্জন, আলোচনায় স্ত্রী


নিজস্ব প্রতিবেদক মে ২১, ২০২৩, ০৪:১৮ পিএম
মেয়রের ভোট বর্জন, আলোচনায় স্ত্রী

সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক ও তার স্ত্রী শ্যামা হক। ফাইল ছবি:

সিলেট: আসন্ন সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন না করার ঘোষণা দিয়েছেন সিটি মেয়র আরিফুল হক। দলীয় সিদ্ধান্তে তিনি নির্বাচনে যাচ্ছেন না। 

তার এমন ঘোষণার পর আলোচনায় উঠে এসেছেন তার স্ত্রী শ্যামা হক। নগরজুড়ে গুঞ্জন, মেয়র অনুসারীদের চাপে স্ত্রী শ্যামা হক প্রার্থী হতে পারেন। 

নিজে প্রার্থী না হলে স্ত্রীর প্রার্থিতায় যেন বাধা হয়ে না দাঁড়ান এমন দাবি তুলেছেন আরিফের অনুসারীরা। রেখেছেন প্রচণ্ড চাপে। 

এবিষয়ে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি দলের দায়িত্বশীল, দলকে গুরুত্ব দিতেই হয়। স্ত্রীর প্রার্থিতার ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে বলেন, এটা উনার একান্ত ব্যক্তিগত ব্যাপার। উনার ব্যক্তিস্বাধীনতায় হস্তক্ষেপের কোনো অধিকার আমার নেই।’ 

মেয়রের ঘনিষ্ঠজনরা বলছেন, ‘মেয়র দলের সুতোয় বাঁধা। তিনি দলের জন্য নির্বাচন বর্জন করেছেন। তাই বলে আমরা বসে থাকতে পারি না। আমরাও বিকল্প ভাবনা রেখেছি। বিকল্প হিসাবে মেয়রের স্ত্রী শ্যামা হকের নাম উল্লেখ করে বলেন, তিনি প্রার্থী হলে মেয়র আরিফের চেয়েও বেশি ভোট পাব আমরা। কারণ বিভিন্ন সংগঠনের প্রায় ৮০ হাজার ভোটব্যাংক রয়েছে শুধু (শ্যামা) ভাবির। যা প্রতিবছর আরিফের অ্যাকাউন্টে যেত।

আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে দুবার মেয়র নির্বাচিত হন আরিফুল হক চৌধুরী। ফলে গত দুই মেয়াদে বিজয়ের মুখ দেখেনি আওয়ামী লীগের নৌকা। এবার আওয়ামী লীগ মেয়র প্রার্থী করেছে আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীকে। শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বী আরিফ নির্বাচন বর্জন করায় এবার নৌকার বিজয় অনেকটা সহজ হয়ে উঠবে বলে রাজনীতিক মহলে আলোচনা চলছে। যদিও মেয়র পদে আরও ৭ জন মনোনয়ন ফরম কিনেছেন।

শনিবার (২০ মে) বিকালে নগরীর ঐতিহাসিক রেজিস্ট্রারি মাঠে এক জনসভায় আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, ‘আমি শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের আর্দশে বিএনপির রাজনীতি শুরু করেছি। আমার জীবন থাকতে এই দলের ক্ষতি হয় এমন কোন সিদ্ধান্ত নেব না। ’

নিজেকে খালেদা জিয়ার সৈনিক দাবি করে সিলেট সিটির টানা দুবারের এই মেয়র বলেন, আমি সব সময় সিলেটবাসীর সঙ্গে আছি।

অনেকেই আমাকে উকিল আব্দুস সাত্তার বানানোর চেষ্টা করেছেন অভিযোগ করে আরিফ আরও বলেন, ‘আমি সেই সুযোগ কাউকে দিতে চাই না। এই সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন করার পরিবেশ নেই। বিশেষ করে ইভিএম নিয়ে নগরের মানুষজন জানে না। এটা ভোট কারচুপির মহা আয়োজন।’

সিলেটের মেয়র বলেন, ‘আমি বাংলাদেশের সাবেক তিনবারের প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান, আমার মা জননী ও আমার শ্রদ্ধেয় আলেম-উলামাদের পরার্মশে এই নির্বাচন বর্জন করলাম।’

আরিফ বলেন, ‘অতীতে আপনারা আমার পাশে ছিলেন। আমি কারাগারে থাকা অবস্থায় আপনারা আমার পাশে এসে দাঁড়িয়ে ছিলেন। আমি সেইসব কথা ভুলতে পারি না।’

সোনালীনিউজ/আইএ

Wordbridge School