• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১

১৮ মাস পর খুলছে জাহাঙ্গীরের বাসার ফটক


গাজীপুর প্রতিনিধি মে ২৭, ২০২৩, ১০:৫৫ এএম
১৮ মাস পর খুলছে জাহাঙ্গীরের বাসার ফটক

গাজীপুর: গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন এর সাবেক মেয়র মোঃ জাহাঙ্গীর আলম। দল থেকে বহিষ্কার ও মেয়র পদ থেকে বহিষ্কৃত হওয়ার পর থেকেই । নিরাপত্তার স্বার্থে তার ছয়দানা বাসভবনে দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকদের অবাদে বাসায় প্রবেশ বন্ধে বাসার প্রধান ফটকে অনেক বিধি নিষেধ বা করা করি আরোপ করা হয়। 

এতে করে জাহাঙ্গীর সমর্থন ও সাধারণ মানুষদের অনেক ভোগান্তি পোহাতে হয়। তবে এবার সেই প্রথা তুলে ফেলা হয়েছে। তার মা জায়েদা খাতুন মেয়র পদে বিজয়ী হওয়ায় দীর্ঘ১৮মাস পরে দলীয় নেতাকর্মী, সমর্থক ও সাধারণ মানুষের অবাধে বাসায় প্রবেশের জন্য শুক্রবার (২৬ মে) সকাল থেকেই জাহাঙ্গীর আলম এর বাসার মূল ফটক খুলে দেওয়া হয়েছে। 

শুক্রবার (২৬ মে) সন্ধ্যায় জাহাঙ্গীরের বাসায় গিয়ে দেখা গেছে, এত দিন যারা প্রকাশ্যে জাহাঙ্গীরের বাসায় আসতে পারতেন না। অথবা বাসায় সব সময় গেট বন্ধ থাকায় হতাশায় সাধারণ লোকজন বাসার সামনে থেকেই চলে যেতেন। এবার তারাসহ জাহাঙ্গীর আলমের এর বাড়িতে হাজারো কর্মী সমর্থক, সাধারণ মানুষ ও সংবাদকর্মীদের উপচে পড়া ভিড় পড়েছে। অপর দিকে দেখা গেছে, সাবেক মেয়রের মা জায়েদা খাতুন মেয়র পদে বিজয়ী হওয়ার পর থেকেই তার বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষেরা বাসার নিচে অবস্থান করছিলেন। বিশেষ করে যেসব লোকজন জাহাঙ্গীর আওয়ামী লীগ ও মেয়র পদ থেকে বহিষ্কারের পর। প্রতিপক্ষ এন্টি আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীদের দ্বারা কোণঠাসা হয়ে পড়েন।

এসব লোকজন অনেকেই বাসার প্রথম তলা,দ্বিতীয় তলা, তৃতীয় তলার প্রত্যেকটি যায়গায় আনাগোনা করছিলেন। অনেক মানুষকে নতুন মেয়রকে শুভেচ্ছা জানাতে ফুল নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতেও দেখা গেছে। এসব অবস্থা দেখে মনে হয়েছে এ যেনো রাজনৈতিক মেলা বসেছে জাহাঙ্গীরের বাসায়। 

গাজীপুর মহানগরীর ৫৭ টি ওয়ার্ডের প্রায় অধিকাংশ ওয়ার্ডের জাহাঙ্গীর ও তার মা জায়েদা খাতুন এর কর্মী সমর্থক ও শুভাকাঙ্ক্ষী দের উপস্থিত ছিলো চোখে পড়ার মতো। 

এখানে কথা হয় ১৩,১৪,১৫,১৬ নম্বরসহ আরও কয়েকটি ওয়ার্ড থেকে আসা জাহাঙ্গীর সমর্থক নেতাকর্মীদের সঙ্গে। এ সময়ে তারা জানিয়েছেন অনেক আনন্দিত ও খুশি দীর্ঘ দিনের পর হলেও জাহাঙ্গীর আলম ভাই এর বাসার মূল ফটকে এখন কড়াকড়ি আরোপ নেই। এখন সাধারণ মানুষের সুবিধার্থে খুলারাখা হয়েছে। 

মহানগরীর নাওজড়ো এলাকা থেকে আসা এক সমর্থক মো: সাইফুল ইসলাম জানান, তিনি এবার নৌকার কর্মী সমর্থকদের ভয়ে জাহাঙ্গীর আলম ভাই এর মা জায়েদা খাতুন এর নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়েছেন অতন্ত্য গোপনীয় ভাবে। তিনি বলেন, তার মা মেয়র হওয়ায় আমি আনন্দে শুভেচ্ছা জানাতে এসেছি। 

এ ব্যাপারে সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমার এবং আমার মায়ের কাছে আসার জন্য সবসময় আমার বাসার দরজা খুলা থাকবে। তিনি আরও বলেন, নগরবাসীর কাছে কৃতজ্ঞ। আমার মা জায়দা খাতুনকে তারা ঘড়ি মার্কায় ভোট দিয়ে জয়লাভ করিয়েছেন। ইনশাআল্লাহ মায়ের সঙ্গে থেকে নগরবাসীর জন্য কাজ করে যাব। তিনি আরও বলেন, আমি ব্যক্তিগত ভাবে কাউকে শত্রু ভাবিনা। যারা আমাকে ভোট দেয়নি। তারাও আমার এবং আমার মায়ের কাছে যে কোন সমস্যার কথা বলার জন্য বাসায় আসতে পারবেন। 

সোনালীনিউজ/এমআর/এসআই

Wordbridge School
Link copied!