• ঢাকা
  • শনিবার, ১৫ জুন, ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১

বাবাকে হারিয়ে পাগলপ্রায় সেই ছেলের পাশে ইউএনও


মৌলভীবাজার প্রতিনিধি জুলাই ২৭, ২০২৩, ০৩:৪৪ পিএম
বাবাকে হারিয়ে পাগলপ্রায় সেই ছেলের পাশে ইউএনও

মৌলভীবাজার : স্থানীয় জনপ্রতিনিধির কাছে বাবার হত্যাকারীর গ্রেপ্তারসহ শাস্তির দাবিতে হাউমাউ করে কাঁদছিলো ১০ বছরের অবুঝ শিশু গোলাম রাব্বানি নিশান। 

২৫ জুলাই ‘কুলাউড়ায় বাবাকে হারিয়ে পাগলপ্রায় ছেলে’ ৪ মিনিটের সেই ভিডিওটি স্থানীয় অনলাইন গণমাধ্যম সময় কুলাউড়ায় প্রকাশের পরই মুহূর্তের মধ্যে ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়। পরবর্তীতে এটি মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাহমুদুর রহমান খোন্দকারের নজরে আসে। 

পরে বৃহস্পতিবার (২৭ জুলাই) সকালে তিনি ওই পরিবারের খোঁজখবর নিয়ে তাদের পাশে দাঁড়ান। এ সময় উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে পরিবারের নিকট ২০ হাজার টাকার চেক প্রদান করেন।

চেক প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাও. ফজলুল হক খান সাহেদ, ব্রাহ্মণ বাজার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রভাষক মমদুদ আহমদ, সময় কুলাউড়া ডট কমের সহযোগী সম্পাদক এস আর অনি চৌধুরী প্রমুখ।

জানা যায়, গত ২১ জুলাই রাতে কুলাউড়া পৌর শহরস্থ দক্ষিণ বাজার এলাকায় ব্যাটারিচালিত বেপরোয়া এক অটোরিকশার ধাক্কায় আব্দুর রব মহসিন (৩৮) নামে এক যুবক নিহত হন। তিনি কুলাউড়া শহরস্থ উছলাপাড়া এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন এবং একটি প্রাইভেট কোম্পানিতে কাজ করতেন।

২১ জুলাই রাত ১০টার দিকে বাজার শেষ করে হেটে হেটে বাসার উদ্দেশ্যে তিনি রওয়ানা হলে দক্ষিণ বাজার এলাকায় ব্যাটারিচালিত একটি অটোরিকশা তাকে ধাক্কা দেয়। এতে মাথায় মারাত্মকভাবে জখম হন তিনি। পরে দ্রুত স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে যাওয়ার পর চিকিৎসক মহসিনকে মৃত ঘোষণা করেন।

ইউএনও মাহমুদুর রহমান খোন্দকার বলেন, সময় কুলাউড়াতে নিহত মহসিনের ছেলের হাউমাউ করে কান্নার ভিডিওটি দেখার পর তার পরিবারের খোঁজখবর নেই। পরবর্তীতে জানতে পারি, মহসিনের পরিবারটি একদমই অসচ্ছল। মহসিনের দুই ছেলের মধ্যে একজন স্কুলে অধ্যয়নরত রয়েছে এবং তার স্ত্রীও স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত। এসব তথ্য পেয়েই মানবিক দিক বিবেচনায় মহসিনের পরিবারের পাশে দাঁড়াই।

ইউএনও অসহায় ওই পরিবারকে সরকারের সকল ধরনের সুযোগ-সুবিধার আশ্বাস প্রদান করে মানবিক সংবাদ প্রচারের কারণে তিনি অনলাইন গণমাধ্যম সময় কুলাউড়াকেও ধন্যবাদ জানান।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

Wordbridge School
Link copied!