• ঢাকা
  • শনিবার, ০২ মার্চ, ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০

অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে প্রাণ গেল শিক্ষা অফিসের কর্মচারীর


ফরিদপুর প্রতিনিধি আগস্ট ২১, ২০২৩, ১২:৩৩ পিএম
অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে প্রাণ গেল শিক্ষা অফিসের কর্মচারীর

ফরিদপুর: ফরিদপুর থেকে কর্মস্থলে আসার পথে লোকাল বাসে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে অচেতন হয়ে পড়েন ফরিদপুরের বোয়ালমারী প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয়ের উচ্চমান সহকারী মো. জাহিদুর রহমান তালুকদার। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

রোববার (২০ আগস্ট) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ফরিদপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি মারা যান। এর আগে সকালে তিনি অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে হাসপাতালে ভর্তি হন।

মো. জাহিদুর রহমান জেলার নগরকান্দা উপজেলার চরযোশরদি ইউনিয়নের দহিসারা গ্রামের হাজী আব্দুর রউফ তালুকদারের ছেলে।

রোববার সন্ধ্যায় মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা শিক্ষা অফিসার আবু আহাদ মিয়া।

তিনি জানান, রোববার (২০ আগস্ট) সকালে জাহিদুর রহমান ফরিদপুর থেকে লোকাল বাসে বোয়ালমারী কর্মস্থলে আসার পথে বাসের মধ্যে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে অচেতন হয়ে যান। বেলা সাড়ে ১০টার দিকে তাকে সহস্রাইল বাজারে বাস থেকে বাসের যাত্রী ও বাসের হেলপাররা নামানোর পর সহস্রাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিজয় সেন এবং চাপখন্ড সরকারি বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ইকবাল হোসেন দেখে শিক্ষা অফিসে ফোন করেন। তাকে স্থানীয়দের সহায়তায় বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগ থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।

বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মাহামুদ হোসেন বলেন, শিক্ষা অফিসের এক কর্মচারীকে অজ্ঞান অবস্থায় লোকজন নিয়ে আসলে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ফরিদপুর মেডিকেলে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন বলে বিষয়টি জানতে পেরেছি।

বোয়ালমারী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. আবু আহাদ মিয়া বলেন, সকাল সাড়ে ১০টায় খবর পাওয়ার সাথে সাথেই ঘটনাস্থল থেকে জাহিদুর রহমানকে শিক্ষকদের সহায়তায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নেয়া হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সন্ধ্যায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় জাহিদুর রহমান মারা যান।

শিক্ষা কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, বোয়ালমারী প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয়ের উচ্চমান সহকারী পদে মো. জাহিদুল ইসলাম কর্মরত ছিলেন। এর আগে ভাঙ্গা উপজেলা শিক্ষা কার্যালয়ের অফিস সহকারী পদ থেকে উচ্চমান সহকারী পদে পদোন্নতি পেয়ে ২০১৩ সালে বোয়ালমারী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয়ে যোগদান করেন তিনি। তিনি স্ত্রী ও স্বর্ণা ও অর্না নামে দুটি মেয়ে নিয়ে ফরিদপুর শহরের ভাড়া বাড়িতে বসবাস করতেন।

সোনালীনিউজ/এসআই

Wordbridge School
Link copied!