• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১

পুলিশের ভয়ে নদীতে ঝাঁপ, দুইদিন পর যুবকের মরদেহ উদ্ধার


লালমনিরহাট প্রতিনিধি সেপ্টেম্বর ৬, ২০২৩, ০৭:৩১ পিএম
পুলিশের ভয়ে নদীতে ঝাঁপ, দুইদিন পর যুবকের মরদেহ উদ্ধার

লালমনিরহাট: পুলিশের ধাওয়া খেয়ে নিখোঁজ হওয়ার দুই দিন পর তিস্তা নদী থেকে হামীম উদ্দিন (২৩) নামে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার (০৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে লালমনিরহাট সদর উপজেলার গোকুন্ডা ইউনিয়নে তিস্তা রেল ব্রীজের নিচ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত ওই যুবক লালমনিরহাট সদর উপজেলার গোকুন্ডা ইউনিয়নের মিয়াপাড়া এলাকার নবিজ কাসাইয়ের ছেলে। বুধবার দুপুরে স্থানীয়রা তিস্তা নদীতে একটি মরদেহ ভাসতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। এরপর পুলিশ এসে মরদেহটি উদ্ধার করে হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

জানা গেছে, সোমবার রাত ১১টায় তিস্তা নদীর রেল ব্রীজের পশ্চিম পাশে একটি নৌকায় দশ থেকে বারো জনের একটি দল জুয়া খেলছিলো। খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশের এস আই আশরাফুল সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ধাওয়া দিয়ে দু'জন জুয়ারুকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করে। এসময় অন্যরা পালিয়ে গেলেও হামীম (২৩) নদীতে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজ হয়। 

এদিকে পুলিশের হাতে আটক জুয়ারু মোজাদ ও জাকির পরদিন মঙ্গলবার আদালত থেকে জামিন নিয়ে কারাগার থেকে বেরিয়ে আসে।

নিহত হামীমের বড় ভাই সামীম জানায়, রাতে জুয়ারু মোজাদ ও জাকির আমার ছোট ভাই হামীমকে বাড়ী থেকে ডেকে নিয়ে যায়। পড়ে শুনতে পাই তারা তিস্তা নদীতে জুয়া খেলা অবস্থায় পুলিশের এস আই আশরাফুল ধাওয়া করে দু'জনকে আটক করে। এসময় ভয়ে আমার ভাই নৌকা থেকে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজ হয়। কিন্তু পুলিশ দু'জনকে ধরে নিয়ে আসলেও আমার ভাই বাঁচলো না মরলো সেদিকে কোন নজর দেয়নি। এমনকি কাউকে জানায়নি।

লালমনিরহাট সদর থানার ওসি ওমর ফারুক জানান, গত দুই দিন থেকে নিখোঁজ ছিলেন যুবক হামীম উদ্দিন। আপাতত সদর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

আইএ

Wordbridge School
Link copied!