• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১

‘সুদখোরদের অত্যাচারে বাঁচতে পারলাম না’


ঝিনাইদহ প্রতিনিধি সেপ্টেম্বর ৯, ২০২৩, ১০:২৩ এএম
‘সুদখোরদের অত্যাচারে বাঁচতে পারলাম না’

ঝিনাইদহ: ঝিনাইদহ সদর উপজেলায় সুদের মহাজনের চাপ সইতে না পেরে চিরকুট লিখে এক ব্যবসায়ী আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

শনিবার (৯ সেপ্টেম্বর) ঝিনাইদহ সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ সোহেল রানা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। শুক্রবার (৮ সেপ্টেম্বর) দুপুর ২টার দিকে হলিধানী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তি সদর উপজেলার হলিধানী ইউনিয়নের রামচন্দ্র পুর গ্রামের শহীদুল্লাহর ছেলে সিরাজুল ইসলাম সুরুজ।

চিরকুটে সিরাজুল ইসলাম লিখেন, ‘সুদখোরদের অত্যাচারে বাঁচতে পারলাম না! আমার জায়গা-জমি বাড়ি সব বিক্রি করে দিয়েছি। একেক জনের কাছ থেকে যে টাকা নেওয়া তার সাত, আট, দশগুণ পরিমাণ টাকা দিয়েও রেহাই দিল না তারা। কেউ মামলা করেছে, কেউ কেউ অপমান অপদস্থ করেছে। আমি আর সহ্য করতে না পেরে বিদায় নিলাম। আমার জানাজা হবে কিনা জানি না। যদি হয় তাহলে সুদখোররা টাকা চাইতে এলে আমার শরীরটাকে কেটে ওদেরকে দিয়ে দিবেন। এই সুদখোরদের বিচার আল্লাহ করবেন। সুদখোরদের নাম বললাম না কিন্তু তারা সবাই টাকার জন্য আসবে। তখন বুঝতে পারবেন তারা কারা।’

নিহতের স্ত্রী সবুরা খাতুন জানান, আমার স্বামী দীর্ঘদিন সৌদি আরব প্রবাসী ছিলেন। কয়েক বছর আগে দেশে ফিরে হলিধানী বাজারে একটি কনফেকশনারির দোকান দেন। পরে হঠাৎ করে দুই ছেলেকে বিদেশ পাঠাতে গিয়ে ঋণগ্রস্ত হয়ে পড়লে দোকান ছেড়ে দেন। এর মাঝে অনেক পাওনাদার তাকে হুমকি ধামকি দিয়ে আসছিল। শুক্রবার (৮ সেপ্টেম্বর) এক পাওনাদারের ফোনে ভয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান। পরে আমার বাবার বাড়িতে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।

ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ সোহেল রানা জানান, শুক্রবার দুপুরে ওই ঘটনাটি ঘটে। এ বিষয়ে অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখবো।

সোনালীনিউজ/এসআই

Wordbridge School
Link copied!