• ঢাকা
  • শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০২২, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের সমালোচনায় ফখরুল


নিউজ ডেস্ক সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২২, ০৪:২৮ পিএম
জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের সমালোচনায় ফখরুল

ঢাকা: বিশ্বে সংঘাত বন্ধে জাতিসংঘে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী যে বক্তব্য দিয়েছেন, তার সমালোচনা করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেছেন, “সরকার নিজেই যখন হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত, তার মুখে বড় কথা মানায় না।”

শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক অনুষ্ঠানে ফখরুল বলেন, “আজকে বড় বড় কথা বলছেন বিদেশে গিয়ে। মার্কিনদের ওখানে গেছেন, ওখানে গিয়ে বলছেন, যে যুদ্ধ চাই না, নিষেধাজ্ঞা চাই না। কেউ চায় না যুদ্ধ পৃথিবীতে, কেউ চায় না নিষেধাজ্ঞা।

“কিন্তু তার (প্রধানমন্ত্রী) মুখে এটা মানায় না। তিনি নিজে এদেশে হত্যার সঙ্গে জড়িত। সরকার যখন এই হত্যাগুলো করছে, গুম হয়ে গেছে ছয়শ এর ওপরে মানুষ… ইলিয়াস আলী, চৌধুরী আলম…।”

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনে বিএনপির রচনা প্রতিযোগিতা কমিটির উদ্যোগে পুরস্কার বিতরণ উপলক্ষে ওই আলোচনা সভায় কথা বলছিলেন মির্জা ফখরুল।

সরকারের বিরুদ্ধে নেতাকর্মীদের গুম-খুনের অভিযোগ তুলে তিনি বলেন, “আজকে শত শত মানুষ তারা থানায় নিয়ে গিয়ে পঙ্গু করে দিয়েছে, সহস্রাধিক মানুষকে তারা হত্যা করেছে, এক্সট্রা জুডিশিয়াল কিলিং করেছে।

“এই কারণে আজকে একটা অত্যন্ত এলিট ফোর্স র‌্যাব, যারা দেশে সুনাম কুড়িয়েছিল অপরাধ দমনের ক্ষেত্রে; এই সরকারের অন্যায় আদেশ পালন করতে গিয়ে তাদেরকে আজকে নিষেধাজ্ঞায় পড়তে হয়েছে। সাতজন কর্মকর্তার উপর নিষেধাজ্ঞা পড়েছে। এটা নিয়ে সরকারের কোনো মাথা ব্যথা নেই। তারা এটা কিছু কোনো করতে পারে না।”

সরকারের বিরুদ্ধেই আগে নিষেধাজ্ঞা প্রয়োজন মন্তব্য করে ফখরুল বলেন, “নিষেধাজ্ঞা ইতোমধ্যে জনগণ দিয়ে দিয়েছে। মানুষ বলে দিয়েছে যে, তোমাদেরকে আর দরকার নাই। বহু হয়েছে, এনাফ ইজ এনাফ।”

মুন্সীগঞ্জে বিএনপি ও পুলিশের সংঘর্ষের পর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যাওয়া যুবদল নেতা শাওন ভুঁইয়াকে গুলি করে হত্যা করে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব।

তিনি বলেন, “এই আন্দোলন এই সংগ্রাম, এই আত্মদান, এই রক্তপাত- এটা বিএনপির জন্য নয়, এটা পুরো জাতির জন্যে। আজকে সমস্ত জাতি একটা মহাসংকটে পড়েছে। আজকে ওরা গণমাধ্যমকে নিয়ন্ত্রণ করে ফেলেছে। এমনভাবে নিয়ন্ত্রণ করে ফেলেছে যে, পত্র-পত্রিকাগুলো কেউ সাহস করে সত্য কথাটা বলতে পারে না- এই অবস্থায় দাঁড়িয়ে গেছে।

সোনালীনিউজ/এআর

Wordbridge School