• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১২ জুলাই, ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১

প্রেমের টানে শিবচরে এসে আইফোন খোয়ালেন সেই ইন্দোনেশীয় তরুণী


মাদারীপুর প্রতিনিধি ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২৪, ০১:০৫ পিএম
প্রেমের টানে শিবচরে এসে আইফোন খোয়ালেন সেই ইন্দোনেশীয় তরুণী

মাদারীপুর : প্রেমের টানে বাংলাদেশে এসে মাদারীপুরের যুবক শামীম মাদবরকে বিয়ে করেছেন ইন্দোনেশীয় তরুণী ইফহা।

শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) জেলার শিবচর উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়নের বড় কেশবপুর গ্রামে জাঁকজমকে বিয়ে অনুষ্ঠিত হয় তাদের।

এদিন সকালে পার্লারে বিয়ের সাজ সাজতে গিয়ে নিজের আইফোন খুইয়েছেন সেই ইন্দোনেশীয় তরুণী।

শুক্রবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে শিবচর পৌর এলাকার ‘পাকিস্তানি বিউটি পার্লার’ নামের একটি পার্লারে এলে সাজগোজের সময় তার আইফোন ফিফটিন প্লাস মডেলের ফোনটি চুরি হয়ে যায়।

ইফহা জানান,পার্লারে এসে আইফোনটি একটি টেবিলে রাখেন। পরে ফোনটি আর খুঁজে পাননি। এ ঘটনায় শিবচর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি।

ইফহার স্বামী শামীম মাদবর বলেন, সকালে শিবচরের স্বর্ণকার পট্টির পাকিস্তানি বিউটি পার্লারে সাজার জন্য নিয়ে যাওয়া হয় ইফহাকে। পার্লারের ভেতরে সাজের সময় ফোনটি চুরি হয়। পরে সিসি টিভির ফুটেজে দেখা যায়, বোরকা পরা এক নারী পার্লারে প্রবেশ করে ফোনটি নিয়ে দ্রুত বের হয়ে যায়। এটি খুবই দুঃখজনক যে, পার্লারে কোনো নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেই। পরে আমরা শিবচর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করি।

পাকিস্তানি বিউটি পার্লারের স্বত্বাধিকারী রেশমা আক্তার বলেন, আমার পার্লারে কাস্টমারের আনাগোনা থাকে সবসময়। ওই বিদেশি মেয়েটি তার ফোন সারাক্ষণই তার হাতে রেখেছিলেন। কিন্তু সাজ শেষে নাকফুল পরতে গেলে ফোনটি দরজার কাছের টেবিলে রাখেন তিনি। ওই সুযোগে বোরখা পরা এক মহিলা এসে ফোনটি নিয়ে দরজা দিয়ে বেরিয়ে যায়। ওই সময় আমি আরেকটি কাজে ব্যস্ত ছিলাম।

শিবচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) সুব্রত গোলদার বলেন, ভুক্তভোগী এ বিষয়ে অভিযোগ দিয়েছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। আমরা তদন্ত করছি।

এমটিআই

Wordbridge School
Link copied!