• ঢাকা
  • রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০

ঢাকার আদালতে বিএনপির ৩৮ নেতাকর্মীর কারাদণ্ড


নিজস্ব প্রতিবেদক  ডিসেম্বর ৬, ২০২৩, ০৮:০৬ পিএম
ঢাকার আদালতে বিএনপির ৩৮ নেতাকর্মীর কারাদণ্ড

ঢাকা: রাজধানীর কোতোয়ালি ও ক্যান্টনমেন্ট থানার নাশকতার দুই মামলায় আজ বুধবার বিএনপির ৩৮ নেতাকর্মীর কারাদণ্ডের রায় দিয়েছেন আদালত।

দণ্ডিতদের মধ্যে ২০১৮ সালের রাজধানীর কোতোয়ালি থানার নাশকতার একটি মামলায় বিএনপির ১২ নেতাকর্মীর তিন বছর করে কারাদণ্ডের রায় দিয়েছেন ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলাম। এ রায়ে কারাদণ্ডের পাশাপাশি আসামিদের প্রত্যেকের পাঁচ হাজার টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরও তিন মাস করে কারাদণ্ডের আদেশ দেন আদালত।

কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন আনোয়ারুল আজিম, হায়দার আলী বাবলা, মো. আলাউদ্দিন, শওকত, পারভেজ, ইমরান হোসেন ইমু, সাঈদ আহম্মেদ রানা, হাজী ফরহাদ রানা, আরিফ হোসেন বাপ্পি, ফজলুল হক মনি, হাজী মো. নাজিম উদ্দিন ও মো. সোবহান।

অপরদিকে রাজধানীর ক্যান্টনমেন্ট থানার নাশকতার মামলায় বিএনপির ২৬ নেতাকর্মীকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ডের রায় দিয়েছেন ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরী।

সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন আব্দুর রশিদ, শামসুল আলম বাবুল, প্রিন্সিপাল মো. লিয়াকত আলী, মো. পারভেজ, রমিজ উদ্দিন রমু, মিয়াজ উদ্দিন, এহসানুল হক বাবু ওরফে নুরুল আফসার বাবু, তারেকুল রাজ্জাক, নাজির উদ্দিন ওরফে দারোগা আলী, সফুর উদ্দিন ওরফে সফু, জাহিদ হাসান খান রনি, তোফাজ্জল হোসেন বাবু, আবুল হোসেন, মাঈনুল ইসলাম অমি, মো. আরিফুল ইসলাম তুহিন, তাসলিমা আক্তার ভূঁইয়া বেবী, মো. জিন্নাত আলী, মো. শাহজালাল শেখ সুমন, মো. ছাইফুল ইসলাম, মো. কবির, মো. সাদ্দাম হোসেন রাব্বি, মোমিনুল হক অপু, মো. মোশারফ হোসেন ও মো. হেলাল উদ্দিন হেলু।

আসামিদের মধ্যে দণ্ডিবিধির ১৪৩ ধারায় ৬ মাস এবং দণ্ডবিধির ৩৩২ ও ৩৫৩ ধারায় ২ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। অপর সাত আসামিকে দণ্ডবিধির ১৪৩ ধারায় ৬ মাস এবং দণ্ডিবধির ৩৩২ ও ৩৫৩ ধারায় এক বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ ছাড়া নারী বিবেচনায় আদালত তাসলিমা আক্তার বেবিসহ ৬ জনকে দণ্ডিবিধির ৩৪৩, ৩৩২ও ৩৫৩ ধারায় ৬ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন। এ মামলায় কবির নামের এক আসামি কারাগারে রয়েছেন। তাকে রায় ঘোষণার সময় কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়। অপর আসামিরা পলাতক থাকায় তাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে।

রায়ে আদালত আসামি মোস্তফা মিন্টু, শহিদুল ইসলাম ওরফে মিঠু, দিদার, রাজীব হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় খালাস দিয়েছেন।

২০১৮ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর মাসে রাজধানীর ক্যান্টনমেন্ট থানায় উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মাসুদুর রহমান বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।

এমএস

Wordbridge School
Link copied!