• ঢাকা
  • শনিবার, ১৫ জুন, ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১

তার কারণে মাকেও বাসায় ঢুকতে দিতে পারি না: কিবরিয়া


বিনোদন ডেস্ক জানুয়ারি ১৩, ২০২৩, ০৪:২২ পিএম
তার কারণে মাকেও বাসায় ঢুকতে দিতে পারি না: কিবরিয়া

ঢাকা: বেড়াতে গিয়ে সন্তানসহ স্ত্রীর মারধর ও হুমকি পেয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন জনপ্রিয় রেডিও জকি ও ইউটিউবার গোলাম কিবরিয়া সরকার।

বৃহস্পতিবার কক্সবাজার সদর মডেল থানা তিনি সাধারণ ডায়েরি করেনি। 

বিষয়টি নিয়ে ওই দিন সন্ধ্যায় নিজের ভেরিফায়েড ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্টে একটি স্ট্যাটাস দেন কিবরিয়া। যেখানে তিনি লেখেন-  ‘প্রিয় পরিচিত জন, আমার জ্ঞান অনুযায়ী আমি কোনোদিন আমার পারিবারিক বিষয় নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে আলোচনা-সমালোচনা হয়, এমন কোনো বিষয় নিয়ে কথা বলিনি। আমি বলতেও চাই না, যতক্ষণ পর্যন্ত সে আমার স্ত্রী। আমি কম-বেশি সোশ্যাল মিডিয়ার নেতিবাচক ফেস করা মানুষ। আমি জানি একটা সংবাদ যাচাই-বাছাই না করে অনলাইনে ছাড়া যায়। ঘটনা পুরো উল্টে দেওয়া যায়। কাউকে নিয়ে পাবিলিকলি বাজে কথা বলার পক্ষে না। আমি জানি আমার চির শত্রু বলে যদি কেউ থেকে থাকে তো সে প্রথম এবং একমাত্র টার্গেট করবে আমার চরিত্র এবং পাবলিক ইমেজ। আমি সেটাতে বিন্দুমাত্র ভয় পাই না। আমি ক্ষমা করতে ভালোবাসি। আমার সন্তানদের ক্ষতি যেমন আমি কোনোদিন মেনে নিব না, ঠিক একইভাবে আপনাদের এই ভুলভাল নিউজ তাদের ফিউচারের জন্য কোনো ক্ষতি হোক, সেটাও আমি চাই না। প্লিজ, আমি আমার কাছে সৎ এবং কারো প্রতি কোনো অন্যায় করিনি। যারা আমাকে ভালোবাসেন তারা আস্থা রাখুন। দোয়া করবেন।’

কিবরিয়ার ওই স্ট্যাটাসের নিচে একজন কমেন্ট করে বলেন, মাথা ঠান্ডা রাখেন কিবরিয়া। ধৈর্য রাখুন। আমি জানি আপনি পারবেন।

ওই কমেন্টের জবাবে কিবরিয়ার বলেন, আমাকে এবার পারতেই হবে লাবলু ভাই। অনেক সেক্রিফাইস করেছি ...অনেক । আপনি ছাড়া আরকে বেশি ভালো জানেন। জন্মদাতা মাকেও ঢুকতে দিতে পারি না আমার বাসায়। সন্তানকেও তাই বলে সেক্রিফাইস! নো। নেভার! আর কতকাল পাবলিক ইমেজের ক্ষতি হবে ভেবে নিজেকে নিজে ধ্বংস করব। আমি সব কিছুর জন্য প্রস্তুত আছি। ইনশা আল্লাহ।

কিবরিয়ার জিডির বিষয়টি নিশ্চিত করে কক্সবাজার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বলেন, আরজে কিবরিয়া স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে কক্সবাজার বেড়াতে এসে পর্যটন এলাকার হোটেল সাইমনে ওঠেন। সেখানে বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে তার স্ত্রী রাফিয়া লোরা সন্তানকে মারধর করেন। পরে স্ত্রীকে ফেরাতে গেলে তাকেও মারধর করেন তার স্ত্রী।

সোনালীনিউজ/আইএ

Wordbridge School
Link copied!