• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৮ আগস্ট, ২০২২, ৩ ভাদ্র ১৪২৯

জাহাঙ্গীরের মেয়র পদের কি হবে, আইন কি বলে?


নিজস্ব প্রতিবেদক নভেম্বর ২০, ২০২১, ০৩:০৩ পিএম
জাহাঙ্গীরের মেয়র পদের কি হবে, আইন কি বলে?

ঢাকা: আওয়ামী লীগ থেকে আজীবন বহিষ্কার হয়েছেন গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম। এই দল থেকে মনোনয়ন নিয়েই তিনি মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন। এক্ষেত্রে দল থেকে বহিষ্কার হলে মেয়র পদ থাকবে কি-না, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

এ প্রসঙ্গে মেয়র জাহাঙ্গীর আলম বলেন, মেয়র পদের বিষয়টি নিয়ে আইনে স্পষ্ট কিছু বলা নেই। 

পদ হারানো জাহাঙ্গীর আলমের মেয়র পদ বাতিলের দাবি তুলছেন তার বিরোধীরা। দল থেকে বহিষ্কারের কারণে নৌকা নিয়ে নির্বাচিত এই নেতা আর পদে থাকতে পারেন না- এমন দাবি তাদের।

তবে দল বহিষ্কার করলে মেয়র পদ যাবে, এমন বিষয় স্থানীয় সরকার আইনে বলা নেই। জাতীয় সংসদেও দেখা গেছে দল থেকে বহিষ্কার করার পরেও একাধিক ব্যক্তি তার সংসদ সদস্য পদ পুরোটা পার করেছেন।

তবে স্থানীয় সরকার আইনে এমন কিছু বিধান আছে, যে কারণে জাহাঙ্গীরের মেয়র পদ ঝুঁকিতে পড়ে যাবে। যদি ক্ষমতাসীন দল তার বিরুদ্ধে মামলা করে এবং সে মামলায় তার বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয়া হয়, যদি তিনি সংখ্যাগরিষ্ঠ কাউন্সিলরের সমর্থন হারান এবং তারা যদি অনাস্থা আনে, তাহলে জাহাঙ্গীরের মেয়র থাকা অনিশ্চিত হয়ে যাবে।

আইন করার মধ্য দিয়ে দেশে দলীয় প্রতীকে স্থানীয় সরকার নির্বাচন শুরু হয় ২০১৬ সালে। সিদ্ধান্ত হয়, সিটি করপোরেশন নির্বাচনগুলোতে রাজনৈতিক দলগুলো নিজেদের প্রার্থী দিতে পারবে দলীয় প্রতীকে। সে বিধান অনুযায়ী নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনে প্রথম দলীয় প্রতীকে নির্বাচন হয়। এরপর একে একে দেশের সব সিটি করপোরেশনে দলীয় প্রতীকে ভোট হয়।

২০১৮ সালের ২৭ জুনের ভোটে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে দলীয় প্রতীক নৌকা নিয়ে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র নির্বাচিত হন জাহাঙ্গীর।

এই নির্বাচন হয়েছে ২০০৯ সালে প্রণীত স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইনে। সেখানে করপোরেশনের মেয়র বা কাউন্সিলরদের যোগ্যতা, অপসারণ বা পদচ্যুতির বিষয়ে নানা শর্তের কথা বলা আছে। তবে দল বহিষ্কার করলে পদ হারাবেন-এমন কোনো কথা বলা নেই।

স্থানীয় সরকার সংশ্নিষ্ট আইনজ্ঞরা বলছেন, মেয়র জাহাঙ্গীর বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের অবমাননা করেছেন, যা সংবিধানের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। তবে স্থানীয় সরকার (পৌরসভা ) আইন ২০০৯ এর কোথায়ও দলীয় সমর্থন হারালে মেয়র পদ শূন্য হবে- এমনটি বলা নেই, যেটি সংসদ সদস্যদের ক্ষেত্রে বলা হয়েছে। তাই এ নিয়ে আইনি জটিলতা বা অস্পষ্টতা রয়েছে। এ ক্ষেত্রে বিষয়টি সর্বোচ্চ আদালতে নিষ্পত্তি হতে পারে বলে মত দিয়েছেন আইনজ্ঞরা।

এদিকে জাহাঙ্গীর মেয়র পদ হারাতে পারেন এরমক ইঙ্গিত দিয়েছে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। 

আইনানুগ কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হবে কি না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, সে ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে। সভায় যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে তা অফিসিয়ালি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়কে জানানো হবে।

সোনালীনিউজ/আইএ

Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System