• ঢাকা
  • শনিবার, ২৮ মে, ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা তেঁতুলিয়ায়  


পঞ্চগড় প্রতিনিধি জানুয়ারি ২৬, ২০২২, ০২:০৪ পিএম
দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা তেঁতুলিয়ায়  

ছবি : সংগৃহীত

পঞ্চগড় : দেশের সর্ব উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ে দিন দিন বেড়েই চলছে শীতের দাপট। উত্তর দিক থেকে বয়ে আসা হিম বাতাস ও ঘন কুয়াশায় এ জেলায় তাপমাত্রা ওঠানামা করছে। তাপমাত্রা ওঠানামা করায় জেলায় দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে শীতের তীব্রতা। ফলে শীতে চরম ভোগান্তিতে অসহায় ও শীতার্ত মানুষ। বুধবার (২৬ জানুয়ারি) সকাল ৯টায় পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৯ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা দেশের মধ্যে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।

আবহাওয়া অধিদফতর সূত্রে জানা যায়, পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ হিমালয়ের পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ বিহার ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে, এর বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

পূর্বাভায় অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ দেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল ও নদী অববাহিকার কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা এবং দেশের অন্যত্র 

হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের রাতের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে ও দেশের অন্যত্র তা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস হ্রাস পেতে পারে। সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে।

সরজমিনে দেখা যায়, এ জেলায় সন্ধ্যা নামার সঙ্গে সঙ্গে উত্তর দিকে থেকে হিম হাওয়া বইতে শুরু করে। পাশাপাশি রাত গভীর হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘন কুয়াশায় আচ্ছাদিত হয়ে পড়ে পুরো জেলা। তা পরদিন সকাল পর্যন্ত কনকনে শীত ও কুয়াশায় মোড়ানো থাকে। তবে আজ সকালের পর কিছুটা সূর্যের আলো পরিলক্ষিত হলেও সূর্যের উত্তাপ দেখা যায়নি এবং বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আবার কুয়াশায় ঢেকে গেছে পুরো জেলা।

ফলে মাঘের শীতে মানুষ কাজকর্ম তেমন একটা করতে পারে না, সময়মতো কাজে যেতে পারছে না। অন্যদিকে দিন দিন জেলার আধুনিক সদর হাসপাতালসহ বাকি চার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে শীতজনিত রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। বেড়েছে রোগীর চাপ, হিমশিম খেতে হচ্ছে হাসপাতালে কর্তৃপক্ষকে। এছাড়াও কৃষি ক্ষেত্রেও শীতের কারণে শ্রমিকসংকট দেখা দিয়েছে। শীত ও কুয়াশার কারণে বেরো বীজতলা, গমখেত ও আলুখেতের ক্ষতির আতঙ্কে রয়েছে কৃষকরা।

আবহাওয়া অফিস জানায়, পঞ্চগড় দেশের প্রান্তিক জেলা। এ জেলা থেকে হিমালয় অনেক কাছাকাছি। জেলা থেকে হিমালয় অনেক কাছাকাছি হওয়ার কারণে হিমালয়ের হিম বাতাস হিমালয়ের কোলে না পড়ে সেই বাতাস পার্শ্ববর্তী এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। তাই প্রতিবছর হিমালয়ের সবচেয়ে চেয়ে নিকটবর্তী বাংলাদেশের পঞ্চগড়ে বেশি শীত অনুভূত হয়।

অন্যদিকে জেলা প্রশাসন বলছে, শীতার্ত মানুষের জন্য জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জেলার ৪৩ ইউনিয়ন ও ৩টি পৌরসভায় প্রায় মোট ৩৪ হাজার শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। পাশাপাশি শীতবস্ত্র চেয়ে দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ে চাহিদাপত্র প্রেরণ করা হয়েছে বলে। অন্যদিকে কৃষকরা যেন তাদের কৃষিখেতে কোনো সমস্যায় না পড়ে তার জন্য জেলা ও উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্যাগ কৃষকদের বিভিন্ন পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

তেঁতুলিয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাসেল শাহ বলেন, বুধবার সকাল ৯টায় তেঁতুলিয়ায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৯ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা সারাদেশের মধ্যে নিম্ন তাপমাত্রা। তবে তাপমাত্রা আরও হ্রাস পাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ৯টায় তেঁতুলিয়ায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ১০ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা দেশের মধ্যে নিম্ন তাপমাত্রা ছিল।

সোনালীনিউজ/এসএন

Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System