• ঢাকা
  • শনিবার, ২৫ জুন, ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯

কুয়াকাটায় সমুদ্রে গোসল করতে নেমে পর্যটক নিখোঁজ


কলাপাড়া (পটুয়াখালী)প্রতিনিধি  মে ২৯, ২০২২, ১০:৪৬ এএম
কুয়াকাটায় সমুদ্রে গোসল করতে নেমে পর্যটক নিখোঁজ

প্রতিনিধি

পটুয়াখালী: পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটার সমুদ্রে গোসল করতে নেমে ফিরোজ শিকদার (২৭) নামের এক পর্যটক নিখোঁজ হয়। দীর্ঘ ৩২ ঘন্টা পেরিয়ে গেলেও নিখোঁজ ওই পর্যটক এর খোঁজ মেলেনি। শনিবার (২৮ মে) সকাল থেকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দলসহ ট্যুরিস্ট পুলিশ ও থানা পুলিশ যৌথ ভাবে উদ্ধার অভিযান শুরু করেছে। এছাড়া নিখোঁজ পর্যটকের স্বজনরা কুয়াকাটার সৈকত এলাকায় খোঁজা-খুজি অব্যহত রেখেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাতে ফিরোজসহ তারা সাতজন পার্শ্ববর্তী উপজেলা গলাচিপার আমখোলা গ্রাম থেকে পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটায় ঘুরতে আসেন। পরের দিন শুক্রবার দুপুর বারোটার দিকে এর মধ্যে ছয় জন সৈকতের জিরো পয়েন্টের পূর্বদিকে সমুদ্রে গোসল করতে নামেন। গোসল শেষে সবাই তীরে উঠে আসেন। এক পর্যায়ে ফিরোজকে না দেখে তার সাথে থাকা স্বজনরা খোঁজাখুঁজি করে। বিষয়টি কুয়াকাটা ট্যুরিস্ট পুলিশ জানতে পেরে তাৎক্ষণিক দুটি ওয়াটার বাইক ও একটি স্পিড বোট নিয়ে সাগরের বিভিন্ন পয়েন্টে নিখোঁজ যুবকরে সন্ধান করে। তবে ধারনা করছেন সাগরে ভাটার টানে হয়তো সে ভেসে গেছে। নিখোঁজ যুবক পার্শ্ববর্তী গলাচিপা উপজেলার আমখোলা গ্রামের মৃত মিলন সিকদারের ছেলে।

নিখোঁজ পর্যটক ফিরোজের চাচাতো ভাই মো.মোকাবব্বর হোসেন জানান, নিখোঁজ হওয়ার সংবাদ পেয়ে তারা কুয়াকাটায় আসেন। শুক্রবার রাত থেকে সবাই মিলে সৈকতের বিভিন্ন স্থান খুজেছি। কোথাও সন্ধান পাইনি। এখন সাগরে ভাটা। জোয়ারের জন্য অপেক্ষা করছি। 

কলাপাড়া ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মোহাম্মদ ইলিয়াস জানান, উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে। ট্যুরিস্ট পুলিশসহ স্থানীয়রা তাদের সহযোগিতা করছেন। তবে নিখোঁজ পর্যটকের খোঁজ না পাওয়া পর্যন্ত আমাদের এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

কুয়াকাটা ট্যুরিষ্ট পুলিশ জোনের সহকারী পুলিশ সুপার আবদুল খালেক জানান, এখন পর্যন্ত নিখোঁজ ফিরোজ শিকদারের খোঁজ পাওয়া যায়নি। তবে উদ্ধারে ট্যুরিষ্ট পুলিশের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

সোনালীনিউজ/এনকে/এসআই

Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System