• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১

দেশের উন্নয়নের ভিত গড়ে তুলেছিলেন বঙ্গবন্ধু: কাজী খলীকুজ্জমান


নিজস্ব প্রতিবেদক আগস্ট ১৩, ২০২৩, ০৭:৩৯ পিএম
দেশের উন্নয়নের ভিত গড়ে তুলেছিলেন বঙ্গবন্ধু: কাজী খলীকুজ্জমান

ঢাকা: বীর মুক্তিযোদ্ধা, বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ এবং উন্নয়ন চিন্তাবিদ ড. কাজী খলীকুজ্জামান আহমদ বলেছেন, স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম সাড়ে তিন বছরের মতো বঙ্গবন্ধু রাষ্ট্র ক্ষমতায় ছিলেন। ঐ স্বল্প সময়ে তিনি শক্ত হাতে এবং দূরদর্শিতার সঙ্গে নেতৃত্ব দিয়ে যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটির শুধু পুনরুদ্ধার নয়, উন্নয়ন এবং পুনর্জাগরণেরও ভিত গড়ে তুলেছিলেন। তাঁর উন্নয়ন দর্শন ছিল মানবকেন্দ্রিকতা। অর্থাৎ উন্নয়ন হতে হবে মানুষকে কেন্দ্র করে মানুষের দুঃখ লাঘবে, মানুষের কল্যাণে।

তিনি বলেন, ‘দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফোটানোই তাঁর বিভিন্ন লেখা ও ভাষণে যেমন রয়েছে, তেমনি রয়েছে দেশ গড়ার লক্ষ্যে তিনি যে সমস্ত নীতি এবং পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিলেন সেগুলোর মধ্যেও।’

রোবাবর (১৩ আগস্ট) ক্যাপিটাল মার্কেট স্ট্যাবিলাইজেশন ফান্ড (সিএমএসএফ)” এর ম্যানেজমেন্ট অফিসে সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

কাজী খলীকুজ্জমান বলেন, তিনি জাতীয় জীবনে গুরুত্বপূর্ণ অন্যান্য বিভিন্ন খাতেও পুনর্গঠন, গঠন বা উন্নয়নের নিমিত্তে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিলেন। সেগুলোর মধ্যে রয়েছে: শিক্ষা, স্বাস্থ্যসেবা, শিশু ও নারী উন্নয়ন, পরিবেশ, মহাকাশ গবেষণা এবং সমুদ্র অধিকার সংক্রান্ত আইন । প্রথমেই যেটা প্রয়োজন ছিল তা হলো রাষ্ট্রের গঠন ও পরিচালনা সংক্রান্ত মূল নীতিকাঠামো অর্থাৎ সংবিধান। এদিকে তিনি রাতারাতি নজর দেন এবং বিজয়ের মাত্র ১০ মাস ১৯ দিনের মাথায় জাতিকে একটি স্বাধীনতার চেতনা-ভিত্তিক মানবকেন্দ্রিক অসাধারণ সংবিধান উপহার দেন।

সভার শুরুতে এ. কে. এম. নুরুল ফজল বুলবুল প্রারম্ভিক আলোচনা করেন। এর পর বঙ্গবন্ধুর জীবনী নিয়ে তথ্যবহুল প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। পরবর্তীতে, আগত অতিথিরা আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন। প্রধান অতিথির তথ্যবহুল আলোচনা সকলের হৃদয় স্পর্শ করে যায়।

এসময় অর্থসূচক সম্পাদক এবং ক্যাপিটাল মার্কেট জার্নালিস্ট ফোরামের প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান দেশের সার্বিক অবস্থার কথা তুলে ধরে বঙ্গবন্ধুর জীবনের আদর্শ এবং স্বপ্নের আঙ্গিকে দুর্নীতি মুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তোলার কথা বলেন।

তিনি বলেন, দেশকে সামনে এগিয়ে নেয়া প্রধানমন্ত্রীর একার পক্ষে সম্ভব নয়। দেশের সরকারী কর্মকর্তা থেকে শুরু করে সবাই যখন দূর্নীতিমুক্ত হবে তখনই দেশ এগিয়ে যাবে।

উক্ত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা, বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ এবং উন্নয়ন চিন্তাবিদ ড. কাজী খলীকুজ্জামান আহমদ।সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রীর সাবেক মুখ্য সচিব এবং ক্যাপিটাল মার্কেট স্ট্যাবিলাইজেশন ফান্ডের (সিএমএসএফ) চেয়ারম্যান মোঃ নজিবুর রহমান। আয়োজনের আহবায়ক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এ. কে. এম. নুরুল ফজল বুলবুল, বিওজি, ক্যাপিটাল মার্কেট স্ট্যাবিলাইজেশন ফান্ড (সিএমএসএফ)।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বোর্ড অব গভর্নরস (বিএজি) সদস্য এবং সিএমএসএফ-এর ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য, বিএসইসি, ডিএসই, সিএসই, সিডিবিএল, বিএসএম, বিআইসিএম-এর কর্মকর্তারা, প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক এবং অনলাইন সাংবাদিকগণ এবং অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যক্তিরা। অনুষ্ঠানে ইস্যুকারী কোম্পানির বিশিষ্ট প্রতিনিধিরাও উপস্থিত ছিলেন।

সভার শুরুতে এ. কে. এম. নুরুল ফজল বুলবুল, প্রারম্ভিক আলোচনা করেন। এর পর, বঙ্গবন্ধুর জীবনী নিয়ে তথ্যবহুল প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। পরবর্তীতে, আগত অতিথিরা আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন। প্রধান অতিথির তথ্যবহুল আলোচনা সকলের হৃদয় স্পর্শ করে যায়।

অনুষ্ঠানের সভাপতি মোঃ নজিবুর রহমান সিএমএসএফ এর পক্ষে তার বক্তব্যে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং নিহত পরিবারবর্গের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও নিহতদের মাগফিরাত কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। এছাড়াও দেশের উন্নয়ন যাত্রা অব্যাহত রাখার জন্য দোয়া করা হয়।

সোনালীনিউজ/এএইচ/আইএ

Wordbridge School
Link copied!