• ঢাকা
  • সোমবার, ২৩ মে, ২০২২, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

শীতে ত্বকের যত্নে অলিভ অয়েল


লাইফস্টাইল ডেস্ক জানুয়ারি ৬, ২০২২, ০৩:৪৬ পিএম
শীতে ত্বকের যত্নে অলিভ অয়েল

ঢাকা : শীত আসার সাথে সাথেই ত্বক শুষ্ক হতে শুরু করে। এমনকী যাদের ত্বক তৈলাক্ত, তাদের ত্বকেও তখন শুষ্ক ভাব চলে আসে। এ কারণে এ সময় ত্বকের বাড়তি যত্নের প্রয়োজন হয়।

শীতে অলিভ অয়েলের চেয়ে উপকারি প্রসাধনীর খোঁজ পাওয়া দুষ্কর। ত্বকের যত্নে অলিভ অয়েলের ব্যবহার বেশ পুরোনো। রূপচর্চার একটি অপরিহার্য অংশ এটি। শরীরের আর্দ্রতা বাড়াতে বা ত্বকের ময়েশ্চার ধরে রাখতে অলিভ অয়েলের বিকল্প নেই।

ত্বক নরম ও কোমল রাখতে : অলিভ অয়েলে থাকে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ও এসেনশিয়াল ফ্যাটি অ্যাসিড। এই তেল দিয়ে ত্বকে মাসাজ করলে তা ত্বককে আরও নরম ও কোমল করে। সেইসঙ্গে বজায় রাখে ত্বকের আর্দ্রতা। এটি শুধু রক্ত সঞ্চালনই বাড়ায় না, সেইসঙ্গে পুষ্টিও পৌঁছে দিতে কাজ করে। এই শীতে ত্বকের বাড়তি যত্ন হিসেবে অলিভ অয়েলের ব্যবহার করুন।

ত্বক উজ্জ্বল করতে : আপনার প্রতিদিনের রূপচর্চার অংশ হিসেবে অলিভ অয়েল রাখুন। এটি ত্বকের পোরসে জমে থাকা তেল ও ময়লা বের করে আনতে কাজ করে। ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে চাইলে অলিভ অয়েল ব্যবহার করুন।

চুলের যত্নে : অলিভ অয়েল সামান্য গরম করে স্কাল্পে ও চুলে লাগিয়ে নিন। হালকা ম্যাসেজ করে ১০-২০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে নিন।

ঠোঁটের যত্ন : এক-চামচ অলিভ অয়েল, সামান্য পাতিলেবুর রস ও বড় দানার চিনি একসাথে মিশিয়ে ঠোঁটে লাগিয়ে নিন। চিনি গলে না যাওয়া পর্যন্ত ম্যাসাজ করুন। এটি ঠোঁটের মরা কোষ দূর, কোমল ও শীতে ঠোঁট ফাটা থেকেও রক্ষা করে।

চোখের যত্নে : প্রতিদিন হাতের আঙুলে অল্প অলিভ অয়েল নিয়ে চোখের চারপাশে হালকা করে ১ মিনিট ম্যাসেজ করুন। ১৫ মিনিট পর ভেজা তুলা দিয়ে হালকা করে মুছে নিন। ডার্ক সার্কেলের সমস্যা কমে যাবে।

মেকআপ রিমুভার : মেকআপ রিমুভার হিসেবে অলিভ অয়েল দুর্দান্ত কাজ করে। এটি ত্বক নরম রাখে এবং সেইসঙ্গে ত্বক থেকে মেকআপের উপাদান তুলে ফেলতে কাজ করে। এক টুকরো পরিষ্কার তুলো নিয়ে সেটি অলিভ অয়েলে ডুবিয়ে নিন। এরপর ধীরে ধীরে ঘষে মেকআপ তুলে নিন। মেকআপ পুরোপুরি তোলা হয়ে গেলে ফেসওয়াশের সাহায্যে মুখ ধুয়ে নিন।

ইনগ্রোন হেয়ার রিমুভার : মুখের অবাঞ্ছিত লোম বা ইনগ্রোন হেয়ার দূর করতেও কাজ করে অলিভ অয়েল। প্রথমে এক টেবিল চামচ অলিভ অয়েল নিন। এরপর তার সঙ্গে মেশান দশ ফোঁটার মতো টি ট্রি অয়েল। সবশেষে এতে মিশিয়ে নিন ব্রাউন সুগার। পুরো মিশ্রণটি মুখে স্ক্রাবার হিসেবে ব্যবহার করুন। এটি মুখ থেকে অবাঞ্ছিত লোম দূর করবে।

স্ট্রেচ মার্ক দূর করতে : স্ট্রেচ মার্ক নিয়ে সমস্যায় ভোগেন অনেকেই। মোটা থেকে চিকন হলে কিংবা মাতৃত্বের পর এই সমস্যা বেশি দেখা যায়। স্ট্রেচ মার্ক বা শরীরের ফাটা দাগ দূর করতে বেশ কার্যকরী একটি উপাদান হলো অলিভ অয়েল। এই তেল স্ট্রেচ মার্কের জায়গায় নিয়মিত মাসাজ করলে দাগ দূর হবে দ্রুতই।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System