• ঢাকা
  • রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০

কোনো অবস্থায় বিশৃঙ্খলা করতে দেওয়া যাবে না: প্রধানমন্ত্রী


নিজস্ব প্রতিবেদক ডিসেম্বর ৮, ২০২৩, ১২:১১ এএম
কোনো অবস্থায় বিশৃঙ্খলা করতে দেওয়া যাবে না: প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা : কেউ যেন বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে, সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। একটি অপশক্তি বিশৃঙ্খলা করতে চেষ্টা করবে। কোনো অবস্থায় বিশৃঙ্খলা করতে দেওয়া যাবে না। এ ব্যাপারে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের একসঙ্গে কাজ করতে হবে বলে উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপড়ায় নিজ বাসভবনে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে বৈঠককালে এসব কথা বলেন তিনি।

নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণার আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ করা যাবে না। নির্বাচন কমিশন ঘোষিত নির্বাচন আচরণবিধি প্রতিপালন করতে হবে। এর কোনো ব্যত্যয় ঘটানো যাবে না।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন, অগ্রগতি ও সমৃদ্ধির ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা চালাতে হবে। জনগণের দোরগোড়ায় যেতে হবে। সরকারের সাফল্যের কথা তুলে ধরতে হবে। সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করে রাজপথে নামাতে হবে। আমার মা, বাবা, ভাই নেই। আপনারাই আমার সব। আমার সব কিছুই আপনারা দেখবেন।

আওয়ামী লীগের সভানেত্রী বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় থেকে বাসন্তীর জন্য কিছুই করেনি। শুধু ফায়দা লুটেছে। আমি পায়ে হেঁটে বাসন্তীর বাড়ি গিয়েছিলাম। আওয়ামী লীগ এখন ক্ষমতায়। আমরা বাসন্তীর অবস্থার পরিবর্তন করেছি।

বৈঠকে গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহাবুব আলী থান, সাধারণ সম্পাদক জিএম সাহাব উদ্দিন আজম, টুঙ্গিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ আবুল বশার খায়ের, সিনিয়র সহসভাপতি মো. ইলিয়াস হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মো. বাবুল শেখ, পৌর মেয়র শেখ তোজাম্মেল হক টুটুল, টুঙ্গিপাড়া পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ সাইফুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মো. ফোরকান বিশ্বাসসহ টুঙ্গিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।  

সন্ধ্যার পর প্রায় ১ ঘণ্টা এ বৈঠক চলে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক নেতা এ তথ্য জানিয়েছেন। 

এর আগে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে দুই দিনের সফরে গণভবন থেকে সড়কপথে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশে রওনা হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিকেল ৩টা ৫০ মিনিটে টুঙ্গিপাড়ায় পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী। এরপর ছাতা নিয়ে প্রবেশ করেন পিতার সমাধিস্থলে। সেখানে বৃষ্টিস্নাত অভ্যর্থনায় সিক্ত হন প্রধানমন্ত্রী। বিকেল ৪টায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তিনি। সেখানে নীরবে কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকেন সরকারপ্রধান। এসময় দলীয় ও স্থানীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে নিজ বাড়ি বঙ্গবন্ধু কমপ্লেক্সে যান তিনি। সেখানে স্থানীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

সফরের দ্বিতীয় দিন শুক্রবার সকাল ১০টায় কোটালীপাড়ায় যাবেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে স্থানীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন। এই সফরের মধ্য দিয়ে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্থানীয় নেতাকর্মীদের দিকনির্দেশনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী–এমনটি বলছেন স্থানীয় নেতাকর্মীরা।

এমটিআই

Wordbridge School
Link copied!