• ঢাকা
  • রবিবার, ২১ জুলাই, ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১

বিসিসিআইয়ের ঘোষিত পুরস্কার নিতে অস্বীকৃতি দ্রাবিড়ের


ক্রীড়া ডেস্ক জুলাই ১০, ২০২৪, ০১:৩১ পিএম
বিসিসিআইয়ের ঘোষিত পুরস্কার নিতে অস্বীকৃতি দ্রাবিড়ের

ঢাকা : টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে শিরোপা জিতে এক দশক পর আইসিসি ট্রফি ঘরে তুলেছে ভারত। এরপরই ভারতের ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই পুরো দলের জন্য মোট ১২৫ কোটি রুপি অর্থ পুরস্কার ঘোষণা করে।  যেখানে হেড কোচ রাহুল দ্রাবিড়ের জন্য ধার্য করা হয় ৫ কোটি রুপি। তবে এই পরিমাণ অর্থ নিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন দ্রাবিড়।

বিশ্বকাপ জয়ে হেড কোচ ছাড়া বাকি কোচিং স্টাফের সদস্যরা পাচ্ছেন ২.৫ কোটি টাকা করে।  তবে হিন্দুস্তান টাইমস তাদের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে,  দ্রাবিড় সহকর্মীদের চেয়ে বেশি অর্থ পুরস্কার প্রত্যাখান করেছেন।

হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, দ্রাবিড় বোর্ডকে তার নগদ পুরস্কার কমিয়ে ২.৫ কোটি রুটি দিতে বলেছেন।  কারণ ব্যাটিং, বোলিং এবং ফিল্ডিং কোচের তুলনায় তিনি বেশি টাকা পেতে চান না।

বিসিসিআইয়ের একটি সূত্র জানিয়েছে, ‘রাহুল তার বাকি সাপোর্ট স্টাফদের (বোলিং কোচ পারস মামব্রে, ফিল্ডিং কোচ টি দিলীপ এবং ব্যাটিং কোচ বিক্রম রাঠোর) হিসাবে একই বোনাস অর্থ (২.৫ কোটি রুপি) চেয়েছেন।  আমরা তার অনুভূতিকে সম্মান করি।’

পুরস্কার নিয়ে দ্রাবিড়ের ভিন্নধর্মী দৃষ্টিভঙ্গি এবারই নতুন নয়।  গত ২০১৮ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে ভারতের শিরোপাজয়ী দলের হেড কোচ ছিলেন দ্রাবিড়।  সে সময় কোচ দ্রাবিড়ের জন্য ৫০ লাখ রুপি, সাপোর্ট স্টাফদের জন্য ২০ লক্ষ টাকা এবং ক্রিকেটারদের জন্য ৩০ লক্ষ টাকা ধার্য করেছিল বিসিসিআই। তখনও দ্রাবিড় সমান অর্থ দিতে বিসিসিআইয়ের কাছে অনুরোধ করেছিলেন। এবার দেশকে বিশ্ব আসরে শিরোপা জিতিয়েও বিনয়ের দুর্দান্ত নজির দেখালেন সাবেক ভারতীয় অধিনায়ক।

এর আগে এক ঘোষণা বিসিসিআই সচিব জয় শাহ বলেছিলেন, ‘আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতায় ভারতীয় দলের জন্য ১২৫ কোটি রুপি পুরস্কার ঘোষণা করতে পেরে আমি আনন্দিত।  টুর্নামেন্টজুড়ে এই দলটি ব্যতিক্রমী প্রতিভা, দৃঢ়তা ও স্পোর্টসম্যানশিপ দেখিয়েছে। ক্রিকেটার, কোচ ও সাপোর্ট স্টাফের সবাইকে অসামান্য অর্জনের জন্য অভিনন্দন।’

এমটিআই

Wordbridge School
Link copied!