• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০২১, ৫ মাঘ ১৪২৭

ভালোবাসার সম্পর্ক স্থায়ী হওয়ার ৫ লক্ষণ


লাইফস্টাইল ডেস্ক নভেম্বর ২৮, ২০২০, ০১:৩২ পিএম
ভালোবাসার সম্পর্ক স্থায়ী হওয়ার ৫ লক্ষণ

ফাইল ছবি

ঢাকা : যত দিন যায় ততোই প্রেমের সম্পর্কের স্থায়িত্ব বাড়তে থাকে। দিন দিন দুইজন দুইজনকে জানার মাধ্যমে তৈরি হয়। এজন্য সারাদিন চ্যাটিং, ফোনে গল্প, একসঙ্গে থাকা, একে অপরের সঙ্গে ঝগড়া সবকিছুই চলতে থাকে। তবে শেষমেশ অনেক গাঢ় সম্পর্কও ভেঙে যায় বিভিন্ন কারণে। ভালোবাসার শুরু থেকেই চূড়ান্ত পরিণয়ের সিন্ধান্ত নেন অনেকে। 

বিয়ের পর তা কতদিন স্থায়ী হবে তা তো কেউ আগে থেকে জানেন না। তবে আপনার প্রেমের সম্পর্ক কতদিন স্থায়ী হবে বা কতদূর গড়াবে তা আগে থেকেই বুঝতে পারবেন। কয়েকটি বিষয়ে খেয়াল রাখুন। এই লক্ষণগুলো চোখে পড়লে বুঝবেন সম্পর্ক টিকে থাকবে না ভেঙে যাবে। 

চলুন লক্ষণগুলো জেনে নেয়া যাক: 

১. সময় কাটানোর মুহূর্তে নিজের উপস্থিতি, সাজগোজ নিয়ে অত্যধিক চিন্তিত হলে তা শারীরিক আকর্ষণ থেকে হতে পারে। শুধু সঙ্গীর সঙ্গে ডেটের সময়েই নয়, এমন যদি সব সময়েই হয়, তার মানে অন্যের চোখে নিজেকে আকর্ষণীয় করে তোলার ইনসিকিওরিটি কাজ করে চলেছে ভেতরে। 

২. অনেক সময় ব্যস্ততার কারণে একসঙ্গে কোথাও খেতে যাওয়া হয় না। এদিকে ব্যস্ততা না থাকলেও সারাদিন একে অপরের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন ঘরেই। কখনো ঘর থেকে বেরিয়ে হাঁটতে বা কোথাও খেতে যেতে ইচ্ছে করে না। এমন হলেও বুঝতে হবে সম্পর্ক শারীরিক চাহিদার উপরে দাঁড়িয়ে রয়েছে।

৩. দু'জনের পরিচিতি হয়তো অনেক বছরের বা অনেক দিনের। মিউচুয়াল ফ্রেন্ডও রয়েছে প্রচুর। সম্পর্কের বয়সও কম নয়। কিন্তু তাও কোথাও একটা খটকা রয়ে গিয়েছে। দু'জন দু'জনের ব্যাপারে সে ভাবে কিছু জানা নেই। জানার ইচ্ছেও কম। এমন হলেও কিন্তু নিজেদের বেশি সময় দেয়া উচিত। না হলে সম্পর্কে সমস্যা হতে পারে। সম্পর্ক দীর্ঘস্থায়ী না ও হতে পারে।

৪. অনেকেই আছেন সম্পর্কের বয়স একটু বেশি হলেই কথা ফুরিয়ে যায়। ফোনে কথা বলছেন কিংবা দেখা হলে। কথা বলার কিছু খুজেই পাচ্ছেন না। অপর পক্ষের এমন আচরনে ধরে নিতে পারেন সম্পর্ক বেশি দিন না ও টিকতে পারে। এ ক্ষেত্রেও ধরে নেয়া যেতেই পারে সম্পর্কের ভবিষ্যত নিয়ে চিন্তা না থাকা বা আলোচনা না করাটা আসলে সম্পর্ক নিয়ে সিরিয়াস না থাকার লক্ষণ।

৫. সম্পর্কে স্থিরতা না থাকাও বড় একটা সমস্যা। আজ ভালো লাগছে সব কিছু, কাল আবার ভালো লাগছে না। বা সম্পর্কের ভবিষ্যৎ নেই। কাল কে কোথায় থাকবে জানা নেই! কিন্তু সম্পর্ক থেকে বেরিয়েও আসা যাচ্ছে না। এমন হলে এই সম্পর্ক দাঁড়িয়ে থাকতে পারে শুধুমাত্র শারীরিক চাহিদার জন্য।

সোনালীনিউজ/এমএএইচ