• ঢাকা
  • সোমবার, ২৭ জুন, ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত পদ্মা সেতুর বিদেশি শ্রমিকরা


নিজস্ব প্রতিবেদক জুন ২৩, ২০২২, ০২:৫৯ পিএম
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত পদ্মা সেতুর বিদেশি শ্রমিকরা

ঢাকা: প্রমত্ত পদ্মার বুকে গড়ে ওঠা পদ্মা সেতুর উদ্বোধন হতে যাচ্ছে ২৫ জুন (শনিবার)।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই সেতু উদ্বোধন করবেন। এর পরদিন (২৬ জুন) সেতুতে যানবাহন চলাচল করবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে আমন্ত্রণপত্র বিলি করা হচ্ছে বলে নিশ্চিত করেছেন সেতু বিভাগের কর্মকর্তারা।

সেতু বিভাগের পরিচালক (প্রশাসন) রুপম আনোয়ার সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নেয়ার জন্য সাড়ে তিন হাজার অতিথিকে আমন্ত্রণ জানাচ্ছি।

‘এর মধ্যে আছেন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, বিদেশি কূটনৈতিক, মুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিকসহ অনেকে’, যোগ করেন তিনি।

বিদেশি কোনো অতিথি অনুষ্ঠানে থাকছেন কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘বিদেশি অতিথিদের মধ্যে আছেন পদ্মা সেতু তৈরিতে যারা বিশেষজ্ঞ হিসেবে কাজ করেছেন, এ ছাড়া আমাদের বিদেশি কর্মীরা, যারা এই সেতু তৈরিতে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন, তারা আমন্ত্রিত হিসেবে থাকবেন।’

এছাড়া বাংলাদেশে অবস্থানরত বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকরাও আমন্ত্রণ পেয়েছেন।

উল্লেখ্য, ৪১টি স্প্যানের মাধ্যমে একসূত্রে গাঁথা হয়েছে পদ্মার দুইপাড়। পৃথিবীর অন্যতম খরস্রোতা নদীর বুকে দন্ডায়মান বিশাল এ স্থাপনা নির্মাণের পেছনেও রয়েছে বিশাল এক কর্মযজ্ঞের গল্প। জার্মানি থেকে হ্যামার, লুক্সেমবার্গ থেকে রেলের স্ট্রিংগার, চীন থেকে ট্রাস, অস্ট্রেলিয়া থেকে পরামর্শক; এমনভাবে বহুদেশ থেকে প্রকৌশলী ও প্রকৌশল যন্ত্রপাতি এসেছে পদ্মায়। 

২০ হাজার শ্রমিক-প্রকৌশলীর টুকরো টুকরো মেধা ও শ্রমে গড়ে উঠেছে বাংলাদেশের স্বপ্নের পদ্মা সেতু। যার নির্মাণকাজে সরাসরি জড়িত ছিলেন বাংলাদেশ এবং চীনের ৭০০ মেধাবী প্রকৌশলী। দিনে পদ্মার দুই পাড়ে কাজ করেছেন ১২ থেকে ১৩ হাজার শ্রমিক।

গত বছরের ১০ ডিসেম্বর শেষ হয় পদ্মা সেতুর স্প্যান বসানোর কাজ। আর এর মধ্য দিয়ে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ মূল সেতুর পুরোটা দৃশ্যমান হয়।

দেশের সবচেয়ে বড় এই সেতু নির্মাণে শুরু থেকে অর্থায়ন জটিলতা ছাড়াও নানা প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলা করতে হয়েছে। সবচেয়ে বড় বাধা হয়ে দাঁড়ায় নদীর তলদেশের ভূস্তরের গঠনজনিত জটিলতা। এ জন্য ৪২টি পিলারের মধ্যে ১৪টির নকশা পাল্টাতে হয়েছে। সেটির সমাধানও হয়েছে অভিনব উপায়ে।

২০১৪ সালের ৭ ডিসেম্বর পদ্মা সেতুর মূল নির্মাণকাজ শুরু হয়। ২০১৫ সালের ১২ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেতুর মূল কাজের ভিত্তি স্থাপন করেন।

সোনালীনিউজ/আইএ

Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System