• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারি, ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮
স্কুলে টিকাদানে অব্যবস্থাপনা

অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ


নরসিংদী প্রতিনিধি জানুয়ারি ১৪, ২০২২, ১১:৩০ এএম
অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ

নরসিংদী : নরসিংদীর মনোহরদীতে স্কুল শিক্ষাথীর্দের জন্য সরকারের টিকাদান কর্মসূচিতে ব্যাপক অব্যবস্থাপনা দেখা দিয়েছে। শিক্ষার্থীরা সকাল থেকে টিকার জন্য মনোহরদী উপজেলা পরিষদ কেন্দ্রে আসলে ও লম্বা লাইন আর টিকা কেন্দ্রের অব্যবস্থাপনার কারণে টিকা নিতে পারছে না।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে টিকাদান কর্মসূচী পালন করার কথা থাকলেও বিপুল পরিমাণ শিক্ষার্থীদের মাস্ক না পড়া ও সামাজিক দূরত্ব না মেনে টিকা কেন্দ্রে অবস্থান করতে লক্ষ্য করা গেছে। অনেক শিক্ষার্থী আবার কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা ও দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাড়িয়ে বিরক্ত হয়ে টিকা না নিয়েই ফিরতে দেখা গেছে। ফলে স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণে শিক্ষার্থীরা করোনা সংক্রমনের ঝুঁকির মুখে পড়ছে। এতে সরকারের শিক্ষার্থীদের টিকার যে উদ্দেশ্য তা ব্যহত হবে মনে করছে বিশেষজ্ঞরা।

উপজেলা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, মনোহরদী উপজেলাতে গত ৮ জানুয়ারি শনিবার ১২ থেকে ১৮ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের করোনা ভাইরাসের থেকে সুরক্ষায় উপজেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগের উদ্যোগে ফাইজার টিকাদান কর্মসূচী শুরু হয় ।

স্বাস্থ্য সুরক্ষার অংশ হিসেবে উপজেলার মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের ২১ হাজার ৫০০ শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে ফাইজার টিকা প্রদান করা হচ্ছে। প্রতিদিন সকাল ৯ টা থেকে দুপুর ২টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের টিকা প্রদান করা হয়। কিন্তু টিকাকেন্দ্র লম্বা লাইন আর টিকা কেন্দ্রের অব্যবস্থাপনার কারণে শিক্ষার্থীরা টিকা নিতে এসে ভোগান্তিতে পড়ছে। স্বাস্থবিধি মেনে টিকাদান কর্মসূচী পালন করার কথা থাকলেও বিপুল পরিমাণ শিক্ষার্থীদের মাস্ক না পড়া ও সামাজিক দূরত্ব না মেনে টিকা কেন্দ্রে অবস্থান করতে লক্ষ্য করা গেছে।

শিক্ষার্থী কেন্দ্রে দীর্ঘক্ষণ অবস্থান করার কারণে তারা দ্রুত টিকা নেয়ার জন্য বিশৃঙ্খলা করছে। সবাই হুড়োহুড়ি করে আগে প্রবেশের চেষ্টা করছে। কেন্দ্রে উপস্থিত স্কাউট ও আইনশৃঙ্খলার সদস্যরা ও তা নিয়ন্ত্রণে হিমশিম খাচ্ছে। আর শিক্ষার্থীদের দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাড়িঁয়ে বিরক্ত হয়ে টিকা না নিয়েই ফিরতে দেখা গেছে। স্বাস্থ্য বিধি না মানার কারণে শিক্ষার্থীরা করোনা সংক্রমনের ঝুকিঁর মখে পড়ছে।

ইতিমধ্যে মনোহরদীতে প্রায় ১৩ হাজার শিক্ষার্থীদের করোনার টিকা প্রদান করা হয়েছে। আজকে ও প্রায় ৪ হাজার ৫০০ শিক্ষার্থীকে টিকা প্রদান করা হবে।

হাতিরদিয়া ছাদত আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হামিদুল ইসলাম বলেন, আমি সকাল সাড়ে সাতটায় টিকা নেয়ার জন্য আসি। টিকার জন্য দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাড়িঁয়ে ছিলাম। পরে লাইনে ধাক্কা-ধাক্কিতে আমি পড়ে যাই ও আমার মাস্ক ছিড়ে যায়।পরে আমি চলে গিয়েছিলাম। এখন আবার টিকা নিতে এসেছি।

আদিল নামে আরেক শিক্ষার্থী বলেন, সকাল থেকেই টিকাকেন্দ্রে খুব ভীড়। এখানে কোন স্বাস্থ্য বিধি নেই। আমি দীর্ঘক্ষণ লাইনে থেকে অনেক ধাক্কা-ধাক্কির পর টিকা নিতে পেরেছি। এখানে আমরা করোনাকে প্রতিরোধের জন্য টিকা নিতে এসেছিলাম। কিন্তু এখানে যেই অবস্থা মনে হচ্ছে করোনা নিয়ে বাড়িতে যেতে হবে।

ছেলেকে নিয়ে টিকা দেয়ার জন্য উপজেলায় এসেছিল আনিসুর রহমান নামে এক অভিভাবক। তিনি বলেন, টিকা কেন্দ্রে টিকা নেয়ার কোন পরিবেশ নেই। শিক্ষার্থীরা দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে ধাক্কা-ধাক্কি করে টিকা নিচ্ছে।

মনোহরদী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শহিদুর রহমান বলেন, টিকা নেয়ার জন্য বিপুল পরিমাণ শিক্ষার্থীরা ভীড় করেছে। আমরা স্কুল গুলোকে নির্দিষ্ট সংখ্যক শিক্ষার্থীদের ভাগে ভাগে বিভক্ত করে নিয়ে আসতে বলেছিলাম। তারা এটা না মানায় শিক্ষার্থীর ভীড় হয়ে গেছে। লাইনগুলোকে প্রতিটি স্কুলকে তাদের শিক্ষক দিয়ে নিয়ন্ত্রণ করার কথা থাকলেও কেই তা করেনি। আর শিক্ষার্থীদের মধ্যে ধাক্কা ধাক্কির কারণে কিছুটা বিশৃঙ্খলা হলেও পরে তা ঠিক হয়ে যায়। সবাইকে মাস্ক ও স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। সবাই উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়েই টিকা নিচ্ছে।

এদিকে নরসিংদীতে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছে। জেলা সিভিল সার্জন অফিস জানিয়েছে গত ২৪ ঘন্টায় নরসিংদীতে ১১১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এরমধ্যে সদর উপজেলায় ১০ জন ও পলাশ উপজেলায় ৪ জন আক্রান্ত হয়েছে। বর্তমানে জেলায় করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৪৪ জন। হাসপাতালে আইসোলেশনে আছে ৩ জন ও হোম আইসোলেশনে আছে ৪১ জন।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

Haque Milk Chocolate Digestive Biscuit
Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System