• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১

মাহির গ্রেফতারে যা বললেন পরীমণি


বিনোদন ডেস্ক মার্চ ১৮, ২০২৩, ০৭:৩২ পিএম
মাহির গ্রেফতারে যা বললেন পরীমণি

ঢাকা: চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। আর কিছুদিন পরই সন্তানের জন্ম দিবেন তিনি। এমন অবস্থায় তাকে পড়তে হলো আইনি জটিলতায়। শনিবার (১৮ মার্চ) ওমরাহ শেষে দেশে ফিরতেই বিমানবন্দর থেকে গ্রেফতার হয়েছিলেন মাহি। তাকে কারাগারেও পাঠানো হয়েছিলো। যদিও বিকেলে জামিন পেয়েছেন। 

এদিকে নায়িকার শারীরিক অবস্থার কথা বিবেচনা করে শোবিজের অনেকেই বিষয়টিকে ভালোভাবে নেননি।

চিত্রনায়িকা পরীমণি সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন, এটা কোনো কথা না ভাই। চুপ করে থাকতে থাকতে কখন যে বোবা হয়ে যাব আমরা! দেখছেন মাহির দিকে। বুক কাঁপলো না আপনাদের!

তিনি আরও লেখেন, একজন অন্তঃসত্ত্বার এই শারীরিক ও মানসিক ধকলের দায়ভার কে নিচ্ছে তাহলে! আইনের এই খেলা বন্ধ হোক।

ইতোমধ্যে প্রেগনেন্সি ও সেলিব্রেটি বিবেচনায় জামিন পেয়েছেন মাহি। এদিন (১৮ মার্চ) বিকেলে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ৫-এর বিচারক ইকবাল হোসেন এই আদেশ দেন।

এর আগে শনিবার (১৮ মার্চ) সকালে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে মাহিকে গ্রেফতার করে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ।

পরে ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে সেখান থেকে তাকে সরাসরি গাজীপুর চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতে পাঠানো হয়। আদালতের বিচারক মো. ইকবাল হোসেন রিমান্ড আবেদন নামঞ্জুর করে এই চিত্রনায়িকাকে গাজীপুর কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

শুক্রবার (১৮ মার্চ) রাতে মারধর, চাঁদাবাজি ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মাহিয়া মাহি ও তার স্বামী রাকিব সরকারের বিরুদ্ধে গাজীপুর মেট্রোপলিটনের বাসন থানায় দুইটি মামলা দায়ের করা হয়। ওই দুই মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সম্প্রতি ওমরা পালন করতে স্বামীর সঙ্গে সৌদি আরব যান মাহি। সেখান থেকে দেশে পৌঁছালে বিমানবন্দর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তার স্বামী রাকিব সরকার পলাতক রয়েছেন। মারধর, চাঁদাবাজি ও জমি দখলের অভিযোগে তাদেরসহ ২৮ জনকে আসামি করে স্থানীয় ইসমাইল হোসেন বাদি হয়ে একটি  মামলা দায়ের করেন। এছাড়া বাসন থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. রোকন মিয়া বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে তাদের (মাহি ও রাকিব) বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন।

সৌদি আরব থেকে শুক্রবার (১৭ মার্চ) সকালে ফেসবুক লাইভে স্বামী রাকিব সরকারের গাড়ির শোরুমে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগ করেন মাহি। তিনি ফেসবুক লাইভে বলেন- তার স্বামীর গাড়ির শো-রুম সনিরাজ কার প্যালেসের গেট ভেঙে ইসমাইল হোসেন ও মামুন সরকারের নেতৃত্বে হামলা ও ভাঙচুর করা হয়। এছাড়াও গাজীপুর মেট্টোপলিটন পুলিশের বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ করেন মাহি।

সোনালীনিউজ/আইএ

Wordbridge School
Link copied!