• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ৩০ মে, ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

হাত ধরতেই ক্ষেপে গেলেন সায়ন্তিকা, চলে গেলেন কলকাতায়


বিনোদন ডেস্ক সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২৩, ০২:৫১ পিএম
হাত ধরতেই ক্ষেপে গেলেন সায়ন্তিকা, চলে গেলেন কলকাতায়

ঢাকা: সম্প্রতি ঢাকাই চলচ্চিত্রের আলোচিত নায়ক জায়েদ খানের সঙ্গে জুটি বেঁধে ‘ছায়াবাজ’ সিনেমায় কাজ করতে বাংলাদেশে আসেন ওপার বাংলার অভিনেত্রী সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ঢাকায় পা রেখেই জায়েদকে সঙ্গে নিয়ে কক্সবাজারে উড়াল দেন তিনি। সেখানে শুটিংয়ে অংশ নেন দুই তারকা। কিন্তু সিনেমার শুটিং পুরোপুরি শেষ হওয়ার আগেই হঠাৎ কলকাতায় ফিরে গেছেন সায়ন্তিকা। 

জানা গেছে, নৃত্য পরিচালকের সঙ্গে দ্বন্দ্বের জেরে শুটিং ছেড়েছেন তিনি। এতে অনিশ্চয়তার মুখে পরেছে ‘ছায়াবাজ’। 

সায়ন্তিকার দাবি, এই সিনেমার নৃত্য পরিচালক মাইকেলকে পরিবর্তন করতে হবে। তাকে পরিবর্তন না করলেন ‘ছায়াবাজ’-এ আর কাজ করবেন না তিনি। কিন্তু হঠাৎ কেন এই নৃত্য পরিচালকের উপর ক্ষেপলেন অভিনেত্রী?

এ বিষয়ে মাইকেল বলেন, ‘নাচের স্টেপ দেখানোর জন্য সায়ন্তিকার হাত ধরতেই তিনি বলেন, হাত ধোরো না, মুখে বুঝিয়ে দাও। কথা না বাড়িয়ে সেভাবেই তাকে বুঝিয়ে দিয়েছি। এই নিয়ে আমার সঙ্গে তার কোনো তর্ক-বিতর্কও হয়নি। কিন্ত কাজ শেষে পরিচালক ও প্রযোজককে সায়ন্তিকা জানান, আমি থাকলে তিনি কাজ করবেন না। ঘটনা শুনে পরিচালক ও প্রযোজক আমার সঙ্গেই কাজ শেষ করার সিদ্ধান্ত নিলে সায়ন্তিকা চলে যান। আমার সঙ্গে সায়ন্তিকার কী সমস্যা বুঝতে পারছি না।’

এ ঘটনায় সিনেমার প্রযোজক মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘সায়ন্তিকা অভিযোগ জানান, মাইকেল নাকি তার হাত ধরেছেন। সিনেমা থেকে মাইকেলকে বাদ দিতে হবে। খোঁজ নিয়ে জানলাম, মাইকেলের দোষ নেই। কাজের স্বার্থেই সায়ন্তিকার হাত ধরেছিলেন তিনি। তাই, সায়ন্তিকাকে জানালাম কাজ করতে হলে মাইকেলের সঙ্গেই করতে হবে। না হলে কাজ করার প্রয়োজন নেই। পরদিন সকালে সায়ন্তিকা সেট ছেড়ে চলে যান।’ 

প্রযোজক আরও জানান, সায়ন্তিকা যদি মাইকেলের তত্ত্বাবধানে কাজ করতে রাজি হন, তাহলে আবার শুরু হবে শুটিং। আমার দেশের শিল্পীদের ছোট করে আমি কোনো কাজ করতে চাই না। এতে আমার ক্ষতি হলেও সমস্যা নেই।প্রয়োজন হলে ভবিষ্যতে নায়ক-নায়িকা পরিবর্তন করে সিনেমার কাজ করতেও পারি।’

আইএ

Wordbridge School
Link copied!