• ঢাকা
  • সোমবার, ২২ এপ্রিল, ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১

এবার অডিও ফাঁস নিয়ে মুখ খুললেন নায়ক ইমন-ডিএ তায়েব


বিনোদন প্রতিবেদক ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২৪, ০৫:২৭ পিএম
এবার অডিও ফাঁস নিয়ে মুখ খুললেন নায়ক ইমন-ডিএ তায়েব

ঢাকা: সম্প্রতি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে চয়নিকা চৌধুরী পরিচালিত ‘কাগজের বউ’ সিনেমাটি। এতে পরীমনি, ডি এ তায়েব ও ইমনকে দেখা গেছে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে। তবে ছবিটি নিয়ে এক সাক্ষাৎকারে ইমন বিতর্ক সৃষ্টি করেছে।

বিষয়টি ঘিরেই অভিনেতা ডি এ তায়েব ও ইমনের একটি কল রেকর্ড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

এবার সেই অডিও ফাঁস নিয়ে মুখ খুললেন নায়ক ইমন-ডিএ তায়েব দুজনই। নায়ক ইমন বলেছেন, ‘কনফিডেন্সের সাথে বলতে পারি এই অডিও এর বিষয়ে আমি কিছুই জানিনা। কে বা কারা অডিও ফাঁস করেছেন সেটি ডিএ তায়েবকে বের করার জন্য অনুরোধ করেছেন।’

ইমন আরও বলেন, ‘আমাকে অনেকেই লাইভ করতে বলেছেন। আমি ডাকলে তো অনেক ভাইব্রাদার আসবে। তাতে দুজনের পক্ষে-বিপক্ষে কথা উঠে আসবে। মানুষ খারাপ বলবে। তার থেকে তায়েব ভাই যেহেতু ডিবির মানুষ তিনি বের করুক কে বা কারা এই অডিও ফাঁস করেছেন। তবে নায়ক ইমন বেশি কষ্ট পেয়েছেন মায়ের চিকিৎসার নামে টাকা ধার করার কথাটিতে।’

অডিও ফাঁস নিয়ে ডিএ তায়েব বলেন, ‘ইমন অডিও না ছাড়লে তাহলে কে ছাড়বে। এর আগেও ইমনের জন্য একজন প্রতিমন্ত্রীর মন্ত্রীত্ব চলে গেছে। এবার আমার সম্মানহানী করছে। এতে আমার কিছু হবে না বরং ছেলেটার প্রতি মানুষের খারাপ ধারনা তৈরী হবে।’ 

এছাড়াও ডিএ তায়েব বলেন, ‘এতোদিন কেন ইমন আমাকে ফোন করলো না। আমাকে আগে যদি বিষয়টি ক্লিয়ার করত তাহলে তো বিষয়টি এতোদূর গড়তো না। এরপর তিনি এটাও বলেন এই অডিও কারা ফাঁস করলো সেটির জন্য দুজন মিলে মামলা করার সিদ্ধান্ত নেন।’

ভাইরাল হওয়া সেই কল রেকর্ডে ডি এ তায়েব অভিনেতা ইমনকে বলছেন, ‘ইমন তোমার একটি ইন্টারভিউ দেখলাম, তুমি কিন্তু খুব অন্যায় করেছো। আমি কিন্তু কখনোই তোমাকে কাস্টিং করি নাই, আর আমি এই সিনেমার প্রযোজকও না। তোমার কাছে চুক্তিপত্র থাকলে তা দেখাও নইলে বিপদে পড়বা।’

তিনি আরও বলেন, ‘মাহির সর্বনাশ করেছো, আমার সঙ্গে লাগতে এসো না উল্লেখ করে ডি এ তায়েব আরও বলেন, তোমার জন্য মাহিও সিনেমাটি করেনি। তুমি একবার একটা কাজ করে সর্বনাশ করেছো মাহির। তোমার কাজের জন্য একজন মন্ত্রীর মন্ত্রীত্ব চলে গেছে। আর এইবার আমি ধরলে কিন্তু পচে যাবা, তোমার পিছনে যত বেকিংয়ি থাকুক না কেন?’

ডি এ তায়েব বলেন, আমি তোমার মত মানুষকে কখনোই কোন সিনেমাতে নিবো না। আইন প্রমাণ চায় সব সময়। তুমি টিভি চ্যানেলে ইন্টারভিউ দিয়ে বড় কিছু হয়ে যাও নাই। প্রমাণ থাকলে দেখাও, নাইলে তুমি কিন্তু বিপদে পড়ে যাবা। জ্ঞানে আসো, হুঁশে আসো।

এদিকে জানা যায় ‘কাগজের বউ’ ছবিটি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র হিসেবে মুক্তি পেলেও এটি শুরুতে ওয়েব ফিল্ম হিসেবে নির্মিত হয়েছিল। এ নিয়ে ছবিটির কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করা নায়ক মামনুন ইমন বেশ ক্ষোভ জানিয়েছিলেন।

এটা নিয়ে এক সাক্ষাৎকারে ইমন বলেন, ‘কাগজের বউ’ কীভাবে চলচ্চিত্র হিসেবে মুক্তি পেয়েছে, এটাই বুঝিনি। শুটিং শুরুর আগে পরিচালক চয়নিকা চৌধুরী একদিন আমাকে ফোন করে বললেন, ইমন আমি একটা ওয়েব ফিল্ম বানাব, গল্পটা হচ্ছে এ রকম। বললাম, অন্য আর্টিস্ট কে কে থাকবেন? তখন তিনি বললেন, পরীমনি। ডি এ তায়েবের কথাও বলেছিলেন। তারপর গল্পটা শুনে রাজি হয়েছি। শুটিং করলাম। কী কারণে যেন আমার কিছু অংশের তো শুটিংই হয়নি। একটা সময় শুনি, এটার প্রযোজক ডি এ তায়েব ভাই।

তিনি আরও বলেন, পরে অবশ্য এত কিছু ভাবিনি। যেহেতু পরীমনির সঙ্গে কাজই হয়নি, গল্পটাও ভালো। ভাবলাম, ওয়েব ফিল্ম হিসেবে একটা কাজ হোক। পরিচালক থেকে শুরু করে আমরা শিল্পীরা সবাই জানি, এটা ওয়েব ফিল্ম। কিন্তু পরে শুনি, ফুটেজ দেখার পর প্রযোজকের মনে হয়েছে, এটা ফিল্ম হতে পারে।

ইমনের সাক্ষাৎকারের পরে অভিনেতা ডি এ তায়েব সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ‘এ বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। ইমন আমার খুব কাছের ছোট ভাই, সে কেনো এমন করলো তাও বুঝতে পারছি না। হয়তো সে আলোচনায় আসতেই এমন মন্তব্য করেছেন। তাছাড়া ছবির প্রযোজক আমি না।

‘কাগজের বউ’ সিনেমায় প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন পরীমণি। এই সিনেমায় আরও অভিনয় করছেন ডিএ তায়েব, ইমন, আবুল হায়াত, দিলারা জামানসহ আরও অনেকে।

এআর

Wordbridge School
Link copied!