• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১

যুক্তরাষ্ট্রে সম্মাননা পেল সাংবাদিক আজিমউদ্দিন অভি


বিশেষ প্রতিনিধি, যুক্তরাষ্ট্র সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২৩, ০১:২৬ পিএম
যুক্তরাষ্ট্রে সম্মাননা পেল সাংবাদিক আজিমউদ্দিন অভি

যুক্তরাষ্ট্র: সাংবাদিকতা পেশায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশী কমিউনিটিতে বিশেষ অবদান রাখায় সম্মাননা পেল যমুনা ‍নিউজের বিশেষ প্রতিনিধি আজিমউদ্দিন অভি। নিউওয়ার্ক ব্রুকলিন কিংস কাউন্টি ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি এরিক গঞ্জেলস (ERICK GONZALES) এর হাত থেকে তিনি এ সম্মাননা ক্রেস্ট গ্রহণ করেন। চার্চ-মাকডোনাল্ড বাংলাদেশী বিজিনেস এসোসিয়েশন ইনক পক্ষ থেকে তাঁকে এ সম্মাননা দেওয়া হয়। 

গত শনিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) নিউ ইয়র্কের ব্রুকলিন ১৪ তম সর্ববৃহৎ পথ মেলা উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নিউ ইয়র্ক সিটি মেয়র এরিকএ্যাডামস, কাউন্সিল ম্যান শাহানা হানিফ। 

এই সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন ডিস্ট্রিক্ট লিডার এটর্নি মইন চৌধুরী, সিডিপেপ হোমকিয়ার সত্তাঅধিকারী চার্চ ম্যাকডোনাল্ড বাংলাদেশী বিজনেস এসোসিয়েশন ইনক এর সভাপতি আব্দুর রব চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম পাটোয়ারী, মেলা কনভেনার মামুনুর রশিদ ও মেলার মেম্বার সেক্রেটারি মাইনুল আলম বাপ্পি সহ, বিজনেস এসোসিয়েশনের সদস্যরা। 

প্রসঙ্গত, করোনা পরিস্থিতিতে যুক্তরাষ্ট্রে যখন মানুষের দুর্বিসহ অব্স্থা বিরাজ করেছিল ঠিক তখন সাংবাদিক অভি জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মাঠ পর্যায়ে সংবাদ সংগ্রহে ব্যস্ত সময় পার করেছেন। যমুনা টিভির মাধ্যমে তুলে ধরেছেন করোনায় আক্রান্ত প্রবাসীদের সুখ-দু:খ। যার ফলশ্রুতিতে যুক্তরাষ্ট্রের মাটিতে বাঙ্গালি কমিউনিটিতে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি স্বরুপ এ সংগঠনটি তাঁকে এ সম্মাননা প্রদান করে। 

তিনি ছাড়াও এ মেলায় বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে আরও কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যক্তিকে সম্মাননা ক্রেস্ট পদ্রান করা হয়। আজিমউদ্দিন অভি ২০১০ সালে চিটাগাং থেকে দৈনিক মানব জমিন পত্রিকা দিয়ে সাংবাদিকতা শুরু করেন। ২০১১ ইমিগ্র্যান্ট হয়ে যুক্তরাষ্ট্রের মাটিতে তিনি পাড়ি জমান। এরপর ২০১২ সাল থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত বাংলা ভিশনের যুক্তরাষ্ট্রের বিশিষ প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত ছিলেন। এরপর ২০২০ সালে যমুনা টিভিতে স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট হিসেবে যোগ দেন । আজিম উদ্দিন অভির দেশের বাড়ী বাংলাদেশে চট্টগ্রাম জেলা সন্দীপ থানা বাউরিয়া গ্রামে। তিনি বর্তমানে স্বপরিবারে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে বসবাস করেন। 

এমএস

Wordbridge School
Link copied!