• ঢাকা
  • সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১১ আশ্বিন ১৪২৯

ভালো নেই পাঠাও-উবার চালকরা


নিজস্ব প্রতিবেদক আগস্ট ৮, ২০২২, ০৯:৪৬ পিএম
ভালো নেই পাঠাও-উবার চালকরা

ঢাকা: দেশে হঠাৎ করেই জ্বালানি তেলের দাম বাড়িয়েছে সরকার আর তাতেই দুশ্চিন্তায় পড়েছেন পাঠাও-উবার চালকরা। তারা বলছেন, আগের চেয়ে এখন যাত্রী সংখ্যা অনেক কমে গেছে। এই সময় জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি আমাদের জন্য ‘মরার ওপর খাঁড়ার ঘা’ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

সোমবার ( ৮ আগস্ট) বিকেলে রাজধানীর শাহবাগ এলাকায় কথা হচ্ছিলো পাঠাও চালক বোরহান উদ্দিনের সঙ্গে। 

তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘সরকার হঠাৎ করেই তেলের দাম বাড়িয়েছে। যার প্রভাব জ্বালানি তেলের সঙ্গে সম্পৃক্ত সব কিছুর উপর পড়েছে। এমনিতেই যাত্রী সংকট তার উপরে ভাড়া বেশি চাইলে মানুষ যেতে চায় না। আবার কম নিলে আমাদের কিছু থাকে না। এ অবস্থায় কোন দিকে যাব বুঝতে পারছি না।’

কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউতে মোটরসাইকেল নিয়ে যাত্রীর অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে থাকা সোহাগ নামে এক যুবক বলেন, ‘করোনার সময় চাকরি হারিয়ে এই পেশায় এসেছিলাম। ভালই দিন যাচ্ছিল তবে হঠাৎ করে তেলের দাম বৃদ্ধির ফলে যাত্রী মিলছে না। যাত্রী পেলেও ভাড়া টাকা সমন্বয় করা যাচ্ছে না। সারাদিনে ৩শ’ টাকার তেল নিলে এখন ৭শ’ টাকাও ইনকাম করা যায় না। তাহলে আমরা কোন দিকে যাব, খাব কী? আগে ডাল-ভাত খেয়ে কোনোরকম দিন গেছে কিন্তু বর্তমানে সরকার সেই উপায়টাও রাখে নাই। এখন গাড়ি-বাড়ি বিক্রি করে গ্রামে যাওয়া ছাড়া আর কোনো উপায় নেই।’   

একই কথা বলেন শাহবাগ মোড়ে যাত্রীর অপেক্ষায় থাকা উবার চালক জসীম উদ্দীন। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘দুই ঘণ্টা যাবৎ বসে আছি, যাত্রী নাই। সবাইতো চায় কম টাকায় যেতে। আমরা দশ টাকা বেশি চাইলে তারা বাসে চলে যায়। এখন আমাদের কী করার আছে? সরকার যেমন করে চালাবে আমাদেরকে তেমন করেই চলতে হবে।’  

বাংলামোটরে যাত্রীর জন্য অপেক্ষা করছিলেন ইসহাক। কথা হলে তিনি বলেন, ‘সকাল থেকে দুপুর হয়ে গেলো এখনও কোনো যাত্রী পাইনি। ভাড়া চাইলেই রাগ করে চলে যায়। তেলের দাম বাড়ছে ভাড়াতো কিছুটা বাড়বেই। এটা যাত্রীরা মেনে নিতে চায় না। অন্যান্য সময় দুপুর পর্যন্ত দুই-তিনটা ট্রিপ মারি। আজকে বিকেল ৫টা বেজে গেছে এখন পর্যন্ত একটা ট্রিপও মারতে পারি নাই। আয় না হলে কিভাবে সংসার চলবে জানি না।’

আরও এক রাইড শেয়ারিং চালক বলেন, ‘অনেকেই এসে বলে অ্যাপসে যাবে। কিন্তু তেলের দাম বাড়ছে, অ্যাপ তো আপডেট করেনি। এজন্য বিপদও হইছে। দরদাম করলেও যেতে রাজি হন না অনেকেই।’ 

উল্লেখ্য, শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাত ১০টায় বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপপ্রধান তথ্য অফিসার মীর মোহাম্মদ আসলাম উদ্দিন স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে দাম বৃদ্ধির খবর জানানো হয়। নতুন দাম অনুযায়ী- প্রতি লিটার ডিজেল ৮০ টাকা থেকে ৩৪ টাকা বেড়ে ১১৪ টাকা, কেরোসিন ৩৪ টাকা বেড়ে ১১৪ টাকা, অকটেন ৪৬ টাকা বেড়ে ১৩৫ টাকা এবং পেট্রল ৪৪ টাকা বাড়িয়ে ১৩০ টাকা করা হয়েছে।

সোনালীনিউজ/এম/আইএ

Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System