• ঢাকা
  • শনিবার, ০২ মার্চ, ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০

ছবি শেয়ার করে যে বার্তা দিলেন রিজওয়ান 


ক্রীড়া ডেস্ক সেপ্টেম্বর ২১, ২০২৩, ০৭:৪৪ পিএম
ছবি শেয়ার করে যে বার্তা দিলেন রিজওয়ান 

ঢাকা: এশিয়া কাপে ব্যর্থ মিশন শেষে পাকিস্তানের ড্রেসিংরুম এতটাই উত্তেজনাপূর্ণ ছিল যে, এতে কথা বলতে বাধ্য হন তরুণ পেসার শাহিন শাহ আফ্রিদি। 

তিনি দলনেতার উদ্দেশে বলেন, যেসব সিনিয়রের পারফরম্যান্স ভালো তাদের ব্যাপারে তিনি (বাবর) যেন ন্যায্য আচরণ করেন। এমনকি খবরে বলা হয়, শাহিন আফ্রিদির সঙ্গে নাকি বাবর আজমের উচ্চবাচ্যও হয়।

কিন্তু পরবর্তীতে পাকিস্তানের গণমাধ্যমগুলোই আবার খবর প্রকাশ করতে থাকে যে, পাকিস্তান দলের ড্রেসিং রুমের যেসব খবর বেরিয়েছে তা আসলে গুজব। এমনকি পাকিস্তানি খেলোয়াড়রাও এ নিয়ে মুখ খুলতে থাকেন।

এক্ষেত্রে প্রথমেই যাদের নিয়ে মূল আলোচনা, সেই বাবর ও শাহিনের একটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। দলনেতার সঙ্গে একান্ত পারিবারিক পরিবেশে ক্যাপচার করা ছবিটি এক্স-এ (আগের টুইটার) পোস্ট করেন শাহিন নিজেই। 

ক্যাপশনে লেখেন, ‘ফ্যামিলি (পরিবার)’। অর্থাৎ সংবাদমাধ্যমে তাদের দুইজনকে নিয়ে যে ‘গল্প’ লেখা হয়, সেটাকে তিনি একটি ছবি ও এক শব্দের ক্যাপশনের মাধ্যমে উড়িয়ে দেন। বার্তা দেন যে, তাদের মধ্যে কোনো ঝামেলা নেই, বরং তারা পরিবারের মতো। 

ক্রিকেট পাকিস্তান সূত্রে জানা যায়, এবার একইভাবে ঐক্যের বার্তা দিলেন পাকিস্তানের উইকেটরক্ষক ব্যাটার মোহাম্মদ রিজওয়ান। সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এক্স-এ একটি ছবি পোস্ট করে এই ঐক্য ও সংহতির শক্তিশালী বার্তা দিয়েছেন তিনি।

খবরে বলা হয়েছে, রিজওয়ান একটি গ্রুপ ছবি শেয়ার করেছেন, তাদের পাশে রয়েছে পাকিস্তানের জাতীয় পতাকা। পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের বৃত্তাকারে ঘনিষ্ঠভাবে দাঁড়ানো ছবিটির মাধ্যমে রিজওয়ান নিজেদের মধ্যে সংহতির গুরুত্ব এবং অভিজ্ঞতা উদযাপনের উপর জোর দিয়েছেন। বিষয়টিকে আরও স্পষ্ট করতে তিনি একটি মর্মস্পর্শী উর্দু কবিতার কয়েকটি ছত্রও ছবির ক্যাপশনে জুড়ে দিয়েছেন। 

ক্রিকেট পাকিস্তান বলছে, কবিতাটি অনুবাদ করলে মোটামুটি নিম্নরূপ অর্থ দাঁড়ায়- ‘এই পতাকার ছায়াতলে, আমরা এক। আমরা এক। আমরা আমাদের সুখ-দুঃখ ভাগাভাগি করি, আমরা এক।’

এআর

Wordbridge School
Link copied!