• ঢাকা
  • সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১১ আশ্বিন ১৪২৯

স্বামীর জন্য উপপত্নী নিয়োগ দিলেন স্ত্রী!


আন্তর্জাতিক ডেস্ক আগস্ট ১৩, ২০২২, ০৫:০৮ পিএম
স্বামীর জন্য উপপত্নী নিয়োগ দিলেন স্ত্রী!

সংগৃহীত ছবি

ঢাকা: স্বামীকে খুশি করতে সুন্দরী এবং শিক্ষিতা উপপত্নী নিয়োগ করেছেন থাইল্যান্ডের নারী পাথিমা চমনান। আর বিষয়টি নিয়ে কোনো লুকোচাপা করতে নারাজ পাথিমা। স্বামীর জন্য উপপত্নী চেয়ে ভিডিও বিজ্ঞাপন বানিয়েছিলেন তিনি, যা ভাইরাল হতে মুহূর্তও লাগেনি।

পাথিমা জানান, দীর্ঘদিন ধরে স্বামী ও তার বিছানা আলাদা। নানা কারণে তাদের মধ্যে ঝামেলা হত। আর সে কারণে স্ত্রী হিসেবে তার মনটা কেমন যেন খচখচ করে। এ কারণেই তিনি স্বামীর জন্য উপপত্নী চেয়ে বিজ্ঞাপন দেন। তবে বিজ্ঞাপনে একজন নয়, তিনজন কলেজ পাশ করা অল্পবয়সী, অবিবাহিত নারীর খোঁজ চেয়েছেন পাথিমা। যাদের এই কাজের জন্য বেতন মিলবে ৪০ হাজার ৩৫৩ টাকা।

পাথিমা ভিডিওতে বলেন, ‘বেতনের পাশাপাশি বিনামূল্যে থাকার জায়গা এবং খাবার দেওয়া হবে। তবে আপনাকে আমাকে সাহায্য করতে হবে। আমার অফিসে নথিপত্রের কাজে সাহায্য করতে দুজনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। অন্য একজনকে আমার, আমার, স্বামীর এবং আমাদের সন্তানদের যত্ন নেওয়ার জন্য নিয়োগ দেওয়া হবে। আমি নিশ্চয়তা দিচ্ছি আপনার এবং আমার মধ্যে কোনোদিন ঝগড়া হবে না।’

পাথিমা আরও বলেন, ‘প্রার্থীদের পক্ষে আমার স্বামীকে খুশি রাখতে পারাটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। উপপত্নীদের ওকে সঙ্গ দিতে এবং বিনোদন দিতে পারদর্শী হতে হবে। তাদের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন স্বভাবের হতে হবে। ভালো কথাবার্তা বলতে জানতে হবে। আমার স্বামী প্রচুর পরিশ্রম করেছেন। এখন আমি তাকে সুখী দেখতে চাই।’

পাথিমা বলেন, ‘আমার স্বামীর জন্য উপপত্নী খুঁজছি, কারণ আমি শারীরিকভাবে অনেক কষ্টের মধ্যে রয়েছি। আমার ক্রনিক ডিপ্রেশন আছে। বুঝতে পারছি আমি আমার স্বামীর যত্ন নিতে পারছি না। স্বামীর সঙ্গে ঘুমাচ্ছি না। আমার খালি মনে হচ্ছে, আমি একজন ভালো স্ত্রী নই।’

এদিকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিজ্ঞাপনটি দেখে চমকে গিয়েছেন পাথিমার স্বামী। এ বিষয়ে কিছুই জানতেন না উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমার স্ত্রী বলেছিলেন তিনি আমার যত্ন নেওয়ার জন্য কাউকে চান। আমার কোনোদিন এমন কোনো ইচ্ছা ছিল না। কিন্তু আমার স্ত্রী যখন বলছেন, আমি না করব না।’

সোনালীনিউজ/আইএ

Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System