• ঢাকা
  • রবিবার, ২৬ মে, ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

তরুণীদের ইনবক্সে অশ্লীল ছবি পাঠিয়ে অর্থ দাবি করত তন্ময়


নড়াইল প্রতিনিধি সেপ্টেম্বর ৬, ২০২৩, ১০:৩২ এএম
তরুণীদের ইনবক্সে অশ্লীল ছবি পাঠিয়ে অর্থ দাবি করত তন্ময়

নড়াইল: মেয়েদের ছবি দিয়ে  ভুয়া আইডি খুলে ফেসবুক ফ্রেন্ড করে অশ্লীল ছবি পাঠিয়ে কয়েক তরুণীকে ব্ল্যাকমেইল করায় তন্ময় সরকার (১৯) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে নড়াইল সদর থানায় পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইন মামলা দায়ের হয়েছে। 
মঙ্গলবার (৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধায় নড়াইল জেলা পুলিশ এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। সোমবার (৪ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে নড়াইল সদর থানাধীন মালিয়াট গ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয়। সে ঐ গ্রামের নরত্তম সরকারের ছেলে।

পুলিশ জানায়, নড়াইল সদর থানায় ভুক্তভোগী এক তরুণীর পিতা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার মেয়ের অশ্লীল ছবি ছড়িয়ে দিয়ে অনৈতিক ভাবে অর্থের দাবি করা অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে একটি এজাহার দায়ের করেন। এরপর মাঠে নামে পুলিশের একাধিক টিম। পুলিশের তদন্তে বেরিয়ে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য।

মেয়েদের পরিচিত মেয়ে বন্ধুদের ছবি দিয়ে  দিয়ে ফেইক আইডি খুলে বন্ধুত্বের অনুরোধ পাঠাতো তন্ময়। ভুক্তভোগীরা তাদের বন্ধু ভেবে তন্ময়ের বন্ধুত্বের অনুরোধ গ্রহণ করত। এরপর তাদের আইডিতে প্রবেশ করে ছবি সংগ্রহ করা করে তন্ময়। এরপর সেসব ছবি দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক মেসেঞ্জারে এডিটকৃত নগ্ন ছবি গুলো ভুক্তভোগী মেয়েদের ইনবক্সে পাঠানোর পাশাপাশি ছবিগুলোকে পুঁজি করে অর্থের দাবি করে সে। তন্ময়ের এমন অপকর্মের শিকার হয়েছেন একাধিক মেয়ে।অনেক ভুক্তভোগী তরুণী ও তার পরিবার সামাজিক সম্মানহানির ভয়ে আসামি তন্ময়কে তার প্রত্যাশা অনুযায়ী টাকা দিয়েছেন। এমনকি বিভিন্ন সময়ে প্রত্যাশা অনুযায়ী টাকা না পাওয়ায় সে ছবিগুলো ভুয়া ফেসবুক আইডির মাধ্যমে পোস্ট করে দিতেন। তার প্রধান উদ্দেশ্য অশ্লীল ছবি গুলোকে পুঁজি করে ভুক্তভোগী পরিবার গুলো থেকে অনৈতিক আর্থিক সুবিধা নেয়া। 

পুলিশ আরো জানায়,  মঙ্গলবার (৫ সেপ্টেম্বর) আদালতে আসামি তন্ময় সরকারকে হাজির করলে আসামি ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেন। 

এমএস

Wordbridge School
Link copied!