• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর, ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭
Sonalinews.com

বিপাকে সারা


বিনোদন ডেস্ক সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০, ০৩:১৫ পিএম বিপাকে সারা

ঢাকা : একজন অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর বলিউডে ‘নেপোটিজম’ মাথা চাড়া দিয়েছে। সাইফ আলী খান ও অমৃতা সিংয়ের কন্যা সারা আলী খানও নেটিজেনদের নিশানার বাইরে নন। ফলে সারা আলীকেও এ নিয়ে ঢের কথা শুনতে হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ নিয়ে কথা বলেছেন সারা। বিরক্তির সুরে বলেন, সাইফ ও অমৃতার মেয়ে হওয়ার জন্য আমাকে সব সময় একটি চাপের মধ্যে থাকতে হয়। আমি আমার কাজকে খুব ভালোবাসি। কিন্তু তা সত্ত্বেও আমি এক অদৃশ্য চাপ অনুভব করি। আমাকে নানা ধরনের নেতিবাচক মন্তব্য শুনতে হয়ে। কিন্তু আমার দোষ কোথায়? আমি তো আমার কাজটিই করে যাচ্ছি। অন্যরা কেন তাদের কাজ বাদ রেখে কুট মন্তব্য নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন।

গতকাল শনিবার জেরা করা হয় দীপিকা ও সারাকে। এরই মধ্যে মাদক ব্যবহার করার কথা স্বীকার করেছেন দীপিকা।

রিয়ার জবানবন্দির ভিত্তিতে সাইফ আলী খানের মেয়ে সারাকে সমন পাঠায় এনসিবি। তলব পেয়ে গোয়ায় ছুটি বাতিল করে মুম্বাই ফিরে আসেন সারা। নির্ধারিত সময় মেনে গতকাল বেলা ১১টায় পৌঁছানোর কথা থাকলেও দুপুর ১টায় মুম্বাইয়ে এনসিবির ব্যালাড এস্টেটের অফিসে পৌঁছান সাইফ আলী খান কন্যা। গোলাপি সালোয়ার ও সাদা প্লাজুতে তদন্তকারীদের জিজ্ঞাসাবাদে শামিল হন সারা।

এদিকে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, জেরায় আসার আগে আইনি পরামর্শ নিয়েছেন অভিনেত্রী। এ ছাড়া সারাকে নিয়ে আলাদা করে আইনজীবীদের সঙ্গে আলোচনা করছেন সাইফ আলী খানও। মেয়ের এই বিপদের দিনে নিজের দায়িত্ব পালনের ত্রুটি রাখছেন না সাইফ।

সারা আলী খান বর্তমান সময়ের বলিউডের ট্রেন্ডি তারকা। ক্যারিয়ারের শুরুতেই ব্লকবাস্টার সুপারহিট সিনেমা উপহার দিয়ে রয়েছেন জনপ্রিয়তার তুঙ্গে। এর মধ্যেই তাকে নিয়ে শুরু হয়েছে নানান রং-ঢং মাখানো সংবাদ। শোনা যাচ্ছে, তিনি নাকি লোকচক্ষুর আড়ালে প্রেমও করছেন। সম্প্রতি বলিউডের আরেক জনপ্রিয় তারকা কারিনা কাপুর খান উপস্থাপিত রেডিও অনুষ্ঠান ‘হোয়াট উইমেন ওয়ান্ট’-এ অতিথি হয়ে আসেন সারা আলী খান। সেখানেই সাইফ আলী খানের এই কন্যার কাছে ব্যক্তিজীবনে তার সৎমা কারিনা জানতে চান, কেমন প্রেমিক পছন্দ তার। জবাবে সারা বলেন, একজন সৎ ও রসবোধসম্পন্ন মানুষের খোঁজই তিনি করেন। কদিন আগে ভারতের হিন্দুস্তান টাইমস এই খবরটি বড় করে ছেপেছে।

সারার তালিকায় ‘সুদর্শন’ বিষয়টি জায়গা না পাওয়ায় চমকে যান কারিনা। সারা বলেন, ‘প্রেমিক বা জীবনসঙ্গীকে দেখতে সুন্দর হতে হবে, তার কোনো মানে নেই। বরং দেখতে সুন্দর না হলেই ভালো। কারণ সুদর্শন ছেলেরা অনেক সময়ই নিজেকে নিয়ে মগ্ন থাকে। এমন মানুষ আমি সামলাতে পারব না।’

সারার এ জবাব বিশ্বাস করতে পারেননি কারিনা। তবু নিজের ভাবনার ব্যাপারে তাকে আশ্বস্ত করতে সারা বলেন, তাকে দেখতে কোনো দিক থেকেই সুন্দর হওয়া যাবে না, এমনটা বলছি না। আমি বলতে চাচ্ছি এতটা সুদর্শনও তার হওয়া চলবে না, যতটা হলে সবাই তাকে নিয়ে কথা বলবে।’ এ রকম সুন্দর ছেলেদের এড়িয়ে যেতেই চান সারা।

২৪ বছর বয়সী সারা আরো জানান, একটা মানুষের চেহারা কেমন, গায়ের রং কেমন, সেটি বড় কথা নয়। কিন্তু নিজের চেহারা কিংবা গায়ের রং নিয়ে আত্মপ্রেমে হাবুডুবু খাওয়া মানুষকে তিনি সহ্য করতে নারাজ।

সারার ভাষ্যমতে, প্রেমে পড়লে এমন কারো পড়ব, যাকে নিয়ে গর্ব করে বলতে পারি, সে শুধুই আমার। ব্যক্তিস্বাধীনতায় আমিও বিশ্বাস করি, কিন্তু ব্যক্তিস্বাধীনতা মানে অন্যকে ধোঁকা দেয়া নয়।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

Side banner