• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই, ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯

নানাবাড়ি যাওয়ার পথে ৪ কিশোরী নিখোঁজ


লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি মে ৮, ২০২২, ১১:২৪ এএম
নানাবাড়ি যাওয়ার পথে ৪ কিশোরী নিখোঁজ

ছবি : সংগৃহীত

লক্ষ্মীপুর : লক্ষ্মীপুরে একই গ্রামের ৪ কিশোরী নিখোঁজ হয়েছে। তাদের বয়স ১২ থেকে ১৪ বছর। তারা সম্পর্কে চাচাতো বোন। সম্ভাব্যস্থানে খুঁজেও তাদের সন্ধান পাওয়া যায়নি।

শনিবার (৭ মে) রাত ১০টার দিকে কমলনগর থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছে পরিবার।

স্থানীয় চর কাদিরা ইউপির চরবসু গ্রাম থেকে সবাই একসঙ্গে এক কিশোরীর নানাবাড়িতে বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে বের হয়ে আর ফেরেনি বলে জানান স্বজনরা। এতে করে চরম উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠায় দিন কাটাচ্ছেন তারা।

শনিবার (৭ মে) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তারা উপজেলার চরকাদিরা ইউনিয়নের চরবসু গ্রামের বাড়ি থেকে বের হয়। কোথাও খুঁজে না পেয়ে সন্ধ্যায় কমলনগর থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করেন তাদের দাদি আকলিমা বেগম।

নিখোঁজ চার বোন হলো- মো. ইব্রাহিমের মেয়ে জোবায়দা আক্তার (১২), মৃত আবুল খায়ের চুন্নুর মেয়ে সিমু আক্তার (১৪), জয়নাল আবেদিনের মেয়ে মিতু আক্তার (১২) ও শামছুল আলমের মেয়ে সামিয়া আক্তার নিহা (১৩)।

নিখোঁজ ডায়েরি সূত্রে জানা যায়, নিহার নানাবাড়ি চরবসু গ্রামে। তিন বোনকে নিয়ে নিহা তার নানাবাড়ি যাওয়ার উদ্দেশ্যে ঘর থেকে বের হয়৷ কিন্তু সময়মতো তারা বাড়িতে ফেরেনি। পরিবার খোঁজ নিতে গিয়ে জানতে পারে তারা নানাবাড়িতে যায়নি। সম্ভাব্যস্থানে খুঁজেও তাদের সন্ধান পাওয়া যায়নি।

জোবায়দার পরনে কমলা রঙের জামা, মিতুর পরনে মিষ্টি রঙের জামা, নিহার পরনে কালো ও গোলাপি রঙের জামা এবং কচু পাতা রঙের সেলোয়ার কামিজ ছিল।

চরবসু এসইএসডিপি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান মানিক বলেন, নানাবাড়ির উদ্দেশ্যে বের হওয়ার পর তারা আর ঘরে ফেরেনি। পরিবারের লোকজন তাদের বিভিন্নস্থানে খোঁজ করেও পায়নি। পরিবারের সঙ্গে তারা নোয়াখালীতে বসবাস করে। ঈদের ছুটিতে বেড়াতে এসেছিল। স্থানীয় এলাকা তারা ভালোভাবে চেনে না।

কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সোলাইমান বলেন, পরিবারের পক্ষ থেকে নিখোঁজ ডায়েরি করা হয়েছে। তাদের খুঁজে পেতে চেষ্টা চলছে। বিষয়টি তদন্তও করা হচ্ছে।

সোনালীনিউজ/এমএএইচ

Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System