• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

পুঁজিবাজারের সমৃদ্ধি নিশ্চিত করাই বিএসইসির লক্ষ্য: সামসুদ্দিন আহমেদ 


নিজস্ব প্রতিবেদক  এপ্রিল ২২, ২০২৪, ০৭:৪৬ পিএম
পুঁজিবাজারের সমৃদ্ধি নিশ্চিত করাই বিএসইসির লক্ষ্য: সামসুদ্দিন আহমেদ 

ঢাকা: পুঁজিবাজারের বিভিন্ন বিষয়ে বাজার সংশ্লিষ্টদের মতামত ও পরামর্শ এর মাধ্যমে দেশের পুঁজিবাজারের সমৃদ্ধি নিশ্চিত করাই বিএসইসির লক্ষ্য বলে মন্তব্য করেন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কমিশনার শেখ সামসুদ্দিন আহমেদ।

সোমবার (২২ এপ্রিল) বিএসইসির কমিশনার ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে বিএসইসির কার্যালয়ে এ বৈঠকে অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে ডিএসই ব্রোকারেজ অ্যাসোসিয়েশন (ডিবিএ), মার্চেন্ট ব্যাংকারদের সংগঠন বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিএমবিএ) এবং শীর্ষ ১০টি ব্রোকারেজ হাউসের নির্বাহীগণ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ পিএলসি এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক, ডিএসই ব্রোকারস অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট, বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্টসহ পুঁজিবাজারের শীর্ষ ব্রোকারেজ হাউসসমূহের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠিত সভায় দেশের পুঁজিবাজারের বর্তমান অবস্থা, চ্যালেঞ্জ এবং অন্যান্য সম্পর্কীত বিষয়সমূহের উপর আলোচনা হয়।

সভায় বিএসইসি’র কমিশনার ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ অন্যান্যের মধ্যে বলেন , “পুঁজিবাজারের অংশীজন এবং ব্রোকাররা বাজারের সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত হয়ে কাজ করছেন। নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি বাজার সংশ্লিষ্টদের মতামত গুরুত্ব সহকারে মূল্যায়ন করে থাকে এবং পুঁজিবাজারের বিভিন্ন বিষয়ে বাজার সংশ্লিষ্টদের মতামত ও পরামর্শ এর মাধ্যমে দেশের পুঁজিবাজারের সমৃদ্ধি নিশ্চিত করাই বিএসইসির লক্ষ্য। পুঁজিবাজারের বর্তমান পরিস্থিতিরি উত্তরণে আজকের সভায় বাজার সংশ্লিষ্টদের মতামত ও পরামর্শ আমলে নিয়ে কাজ করবে বিএসইসি। বাংলাদেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি ও আর্থিক অবস্থান যেমন উন্নতি হচ্ছে এবং দেশের পুঁজিবাজারও দ্রুতই প্রাণবন্ত ও বলিষ্ঠ রূপে ফিরবে বলে আশা করা যায়।” সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় দ্রুতই বিনিয়োগকারীদের স্বার্থ ও পুঁজির সুরক্ষা নিশ্চিত করে দেশের পুঁজিবাজারের উন্নয়ন তরান্বিত করার বিষয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। সভায় আগত সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান তিনি। 

সভায় বিএসইসি’র নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ রেজাউল করিম পুঁজিবাজারের বর্তমান পরিস্থিতিতে বিদ্যমান চ্যালেঞ্জসমূহ তুলে ধরে করণীয় বিষয়ে আলোকপাত করেন এবং বিএসইসি’র নিবন্ধনপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান সমূহের(স্টক ডিলার, মার্চেন্ট ব্যাংক, অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি, মিউচুয়্যাল ফান্ড ইত্যাদি) এর বিনিয়োগ বাড়ানোর জন্য আহ্বান জানান। এছাড়াও ব্যাংকের বিনিয়োগ বাড়ানোর বিষয়ে ব্যাংকসমূহের হেড অব ট্রেজারিদের সাথে একটি সভা অনুষ্ঠানের বিষয়ে মতামত দেন তিনি। 

এছাড়াও সভার আলোচনায় ব্রোকারেজ হাউসসমূহের শীর্ষ কর্মকর্তাবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন এবং মূল্যবান মতামত দেন। উপস্থিত ব্রোকারেজ হাউসসমূহের প্রতিনিধিবৃন্দ দেশের বাজারকে আরো ভালো অবস্থানে নিয়ে যেতে নিজেদের সর্বাত্বক চেষ্টা ও সহযোগিতা থাকবে বলে আশ্বস্ত করেন। বর্তমান বাজার পরিস্থিতিসহ দেশের পুঁজিবাজারে সংকটসমূহ ও সংকট উত্তরনের উপায়সহ এবং পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের নানাদিক এসময় আলোচনায় উঠে আসে। বাজারের তারল্য সমস্যা, অর্থনৈতিক অস্থিরতাসহ বিভিন্ন সমস্যার কথাও তুলে ধরেন তারা। 

সর্বোপরি বর্তমান পুঁজিবাজারে বিদ্যমান নানা সমস্যা সম্পর্কে সভায় বিস্তারিত আলোচনা হয় এবং এসকল সমস্যা সমাধানের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়ে বিএসইসি ও ব্রোকারেজ হাউজের প্রতিনিধিরা সমন্বিতভবে কাজ করার বিষয়ে একমত হন।

এমএস

Wordbridge School
Link copied!