• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৬ আশ্বিন ১৪২৮
abc constructions

দ্রুত টিকাদান সম্পন্ন করে রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের কর্মস্থলে পাঠানোর দাবি


নিজস্ব প্রতিবেদক জুলাই ৫, ২০২১, ০৬:২৩ পিএম
দ্রুত টিকাদান সম্পন্ন করে রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের কর্মস্থলে পাঠানোর দাবি

ফাইল ফটো

ঢাকা: ‘এসো এক হই, অধিকারের কথা কই, প্রবাসীদের অধিকার, আমাদের অঙ্গীকার’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে মালয়েশিয়া প্রবাসীদের উদ্যোগে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদ মালয়েশিয়া শাখার পেনাং বিভাগের আয়োজনে ভার্চুয়ালি গত শনিবার (৩ জুলাই) বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে এ দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। 

প্রবাসী অধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির ১নং যুগ্মসাধারণ সম্পাদক এস এম শাফায়েত হোসেন এর সভাপতিত্বে পেনাং বিভাগের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক হাফেজ মাওলানা মো. তোফায়েল আহমেদের সঞ্চালনায় দোয়া মাহফিলের শুরুতে পবিত্র কুরআনুল কারীম থেকে তেলাওয়াত করেন হাফেজ ক্বারী আবু ইউসুফ, হাফেজ ক্বারী আবুল বাসার হেলালি এবং হাফেজ ক্বারী আব্দুর রাজ্জাক। এসময় বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদ মালয়েশিয়া শাখা পেনাং বিভাগের সভাপতি মো. রাকিব হাসান উপস্থিত ছিলেন। 

দোয়া মাহফিলে উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির ১নং যুগ্মসাধারণ সম্পাদক এস এম শাফায়েত হোসেন। 

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ড. মুহাম্মদ মেহেদী মাসুদ। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশে প্রবাসী অধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি মো. সাইদুল ইসলাম। 

দোয়া মাহফিলে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আল মামুন, কার্যনির্বাহী কমিটির সভাপতি মো. জাহিদ হাসান, কার্যনির্বাহী কমিটির সাধারণ সম্পাদক জনাব মো. শরীফ হোসেন, কার্যনির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ রুহুল আমিন, কার্যনির্বাহী কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ আলী, কার্যনির্বাহী কমিটির সহ মানব পাচার প্রতিবাদ ও পুনর্বাসন সম্পাদক মো. রুবেল হোসেন এবং বিভিন্ন দেশ থেকে বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদের নেতাকর্মীরা।

বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদ মালয়েশিয়া শাখার পেনাং বিভাগের আয়োজনে দোয়া মাহফিল

এসময় বক্তারা বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদের পক্ষে বাংলাদেশ সরকারের কাছে বিভিন্ন সমস্যা তুলে ধরে জোর দাবি জানান। 

তারা বলেন, বাংলাদেশের যে সকল শ্রমিক প্রবাসে পাঠানো হয় তাদেরকে যেন জি-টু-জি’র (সরকার-টু-​সরকার) মাধ্যমে পাঠানো হয়। এবং যে সকল বাংলাদেশি শ্রমিক প্রবাসে মৃত্যুবরণ করবে তাদেরকে যেন বাংলাদেশ সরকারের খরচের মাধ্যমে স্বজনদের কাছে ফিরিয়ে দেয়া হয়। 

বক্তারা আরও বলেন, রেমিট্যান্স যোদ্ধারা দেশের সম্পদ। দেশকে এগিয়ে নিতে তাদের অবদান সবচেয়ে বেশি। কিন্তু এই করোনাকালীন সময়ে অনেক রেমিট্যান্স যোদ্ধাই দেশে আটকে পড়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন। দেশে আটকে পড়া প্রবাসীদের টিকাদান পদ্ধতি সহজতর করে তাদের দ্রুত কর্মস্থলে ফেরত পাঠানোর অহ্বান জানাচ্ছি।

সবশেষে দোয়া মাহফিলে বিশ্বকে করোনা মহামারী থেকে পরিত্রাণ চেয়ে মোনাজাত করা হয়। এসময় করোনায় যে সকল রেমিট্যান্স যোদ্ধার মৃত্যুবরণ করছেন তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা এবং যারা অসুস্থ আছেন তাদের সুস্থতা কামনা করা হয়।

সোনালীনিউজ/এমএইচ

Haque Milk Chocolate Digestive Biscuit
Dutch Bangla Bank Agent Banking
Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System