• ঢাকা
  • সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০

নাসুমকে চড় মারা প্রসঙ্গে মুখ খুললেন হাথুরু


স্পোর্টস ডেস্ক ডিসেম্বর ৫, ২০২৩, ০৬:৩৭ পিএম
নাসুমকে চড় মারা প্রসঙ্গে মুখ খুললেন হাথুরু

বাংলাদেশের প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে, ছবি: সংগৃহীত

স্পোর্টস ডেস্ক: বিশ্বকাপ চলাকালীন ক্রিকেটার নাসুম আহমেদকে শারীরিক হেনস্থার অভিযোগ উঠেছিল কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের বিরুদ্ধে। প্রথমে ওই ক্রিকেটারের নাম না জানা গেলেও আস্তে আস্তে সামনে আসে নাসুমের নাম। বিষয়টি নিয়ে সারাদেশে আলোচনা তুঙ্গে। একটি বেসরকারি টেলিভিশনে এ নিয়ে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে সমর্থকদের মধ্যেও।

এখন পর্যন্ত বিষয়টি নিয়ে মুখ খোলেনি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। তবে এবার সাংবাদিকদের প্রশ্নের মুখে পড়লেন হাথুরু। তিনি বলেন, তাকে নিয়ে মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে। এ ধরনের কাজ তার মতো মানুষের পক্ষে সম্ভব নয়।

মঙ্গলবার (০৫ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের আগে মিরপুরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন হাথুরু।

হাসিমুখেই সংবাদ সম্মেলন শেষ করার পথেই ছিলেন তিনি। কিন্তু ‘নাসুমকে চড় মারা’ প্রসঙ্গে প্রশ্ন করার সঙ্গে সঙ্গে তার চেহেরা বদলে যায়। চোয়াল শক্ত হয়ে আসে। তেলে-বেগুনে জ্বলে ওঠে তিনি বলেন, যারা আমাকে একটু হলেও জানে, তারা জানে এ রকম কিছু করার মতো মানুষ আমি কিছুতেই নই।

হাথুরু বলেন, আপনাদের মিডিয়ার মান খুবই নিম্ন পর্যায়ের। এরপর তাকে সরাসরি প্রশ্ন করা হয়, আপনি কি নাসুমকে চড় মেরেছিলেন? জবাবে ক্ষোভে ফুঁসতে থাকা হাথুরুর জবাব ছিল, তুমি কি পাগল হয়েছো?

এমনকি এরপর হাথুরুর মুখ থেকে রাবিশ, ‘বুলশিট’ ধরনের শব্দ অবিরাম ছুটতে থাকে। সেদিন আসলে কী ঘটেছিল, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কী ঘটেছে আমি জানিই না! যারা সেদিন সেখানে উপস্থিত ছিল, তাদের জিজ্ঞাসা করুন। বুলশিট।

এদিকে বিষয়টি নিয়ে বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা কমিটির প্রধান জালান ইউনুস বলেন, যেহেতু বিশ্বকাপ ব্যর্থতার একটি কমিটি তদন্ত শুরু করে দিয়েছে, তাই এখন কোনো মন্তব্য করতে চাচ্ছি না। ও রকম কিছু (নাসুমকে চড় মারার ঘটনা) ঘটে থাকলে নিশ্চয়ই তদন্তে বেরিয়ে আসবে। বিশ্বকাপের সময় কলকাতায় থাকার সময় এটা শুনেছিলাম। ওটা চড় ছিল নাকি ধাক্কা বা অন্য কিছু, তা আমরা স্পষ্ট জানতাম না। তাছাড়া ওখানে দলের সঙ্গে টিম ডিরেক্টর এবং ম্যানেজারও ছিলেন। কিছু ঘটে থাকলে তাদের জানার কথা। নিউজিল্যান্ড ম্যাচের পর আরো দুই ম্যাচ হয়ে যাওয়ার পরও দলের কেউ কিন্তু কোনো অভিযোগ করেনি।

ওয়াইএ

Wordbridge School
Link copied!