• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন, ২০২১, ১১ আষাঢ় ১৪২৮
abc constructions

শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংক এর ২০ বছরপূর্তি উদ্যাপন


নিজস্ব প্রতিনিধি মে ১১, ২০২১, ০২:৫৫ পিএম
শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংক এর ২০ বছরপূর্তি উদ্যাপন

প্রতিনিধি

ঢাকা: শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড-২০০১ সালের ১০ মে কার্যক্রম শুরু করে সম্পূর্ণ ইসলামী শরীয়াহ্ মোতাবেক ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে এবং সফল ভাবে ২০ বছর সমাপ্ত করেছে। ব্যাংকের ২০বছরপূর্তি উদ্যাপন উপলক্ষে মঙ্গলবার (১১ মে) করপোরেট প্রধানকার্যালয়সহ সকল শাখায় ও উপ-শাখায় পবিত্র কোরআন খতম এবং নভেল করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে ডিজিটালপ্লাটফর্মে দরূদ ও দো’আমাহ্ফিল এর আয়োজন করা হয়। উক্ত দো’আমাহ্ফিলে দেশ ও জাতির বৃহৎকল্যাণে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংকের পরিচালক পর্ষদের সম্মানিত চেয়ারম্যান মোঃ সানাউল্লাহ সাহিদ এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক ওসিইও এম. শহীদুল ইসলাম ডিজিটালপ্লাটফর্মে আয়োজিত উক্ত দো’আমাহ্ফিলে অংশ গ্রহণ করে ব্যাংকের উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি কামনায় দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন। 

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে ব্যাংকের পরিচালক পর্ষদের ভাইস-চেয়ারম্যান মোঃ হারুন মিয়া, পরিচালকবৃন্দ আব্দুল হালিম, আক্কাচ উদ্দিন মোল্লা, ইঞ্জিনিয়ার মোঃ তৌহিদুর রহমান, স্বতন্ত্র পরিচালক কে এ এম মাজেদুর রহমান ও নাসির উদ্দিন আহমেদ, ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল আজিজ ও এস. এম. মঈনুদ্দীন চৌধুরী, উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালকবৃন্দ মোঃ শাহ্জাহান সিরাজ, এম. আখতার হোসেন ওমিঞা কামরুলহাসান চৌধুরী, পাবলিক রিলেশন্স ডিভিশনের প্রধান ও ইভিপি মোঃ সামছুদ্দোহা এবং কোম্পানি সচিব মোঃ আবুল বাশার-সহ ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের প্রধান ও কর্মকর্তাবৃন্দ অংশ গ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে দো’আ ও মোনাজাত পরিচালনা করেন ব্যাংকের শরীয়াহ্বিভাগের প্রধান ও এভিপি মাওলানা মোঃ ফরিদ উদ্দিন।

শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড ২০০১ সালের ১০ মে থেকে ব্যাংকিংকার্যক্রম শুরু করে এবং দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে এ পর্যন্ত ১৩২ টি শাখা, ২টি উপ-শাখা, ২টি প্রাইওরিটি ব্যাংকিং ইউনিট, অফশোর ব্যাংকিং ইউনিট, উল্লেখযোগ্য সংখ্যক এটিএমবুথ এবং দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে স্থাপিত এজেন্ট ব্যাংকিং আউটলেট এর মাধ্যমে গ্রাহকদেরকে আধুনিক প্রযুক্তির সমন্বয়ে উন্নত ব্যাংকিং সেবা প্রদান করে আসছে। ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত এ ব্যাংকের মোট আমানত ২১,৯৯৪.০০ (একুশ হাজার নয় শত চৌরানব্বই) কোটি টাকা ও মোট বিনিয়োগের পরিমাণ প্রায় ১৯,৫৪০.০০ (উনিশ হাজার পাঁচ শত চল্লিশ) কোটি টাকা। ০১ জানুয়ারি২০২১ থেকে ৩০ এপ্রিল২০২১ইং তারিখ পর্যন্ত মোট আমদানি ও রপ্তানি বাণিজ্যের মোট পরিমাণ প্রায় ১৩,০৪৪.০০ (তের হাজার চুয়াল্লিশ) কোটি টাকা। বর্তমানে এই ব্যাংকের গ্রাহক সংখ্যা ৯,৯৯,০০০ জন। ঊসবৎমরহম Emerging Credit Rating Limited (ECRL) এর রেটিং এ শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংকের ক্রেডিট রেটিং iwUsLong Term-এ AA এবংShort Term-G ST-2। দেশের শীর্ষ স্থানীয় আর্থিক ভাবে শক্তিশালী ব্যাংক গুলোর মধ্যে শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংক অন্যতম। এই স্বল্প সময়ের মধ্যেই ব্যাংকটির আর্থিক ভিত অত্যন্ত সুদৃঢ় অবস্থানে উপনীত হয়েছে। দক্ষ জনবল, বিজ্ঞ পর্ষদের দূর দর্শিতা এবং সময়োপযোগী নীতিমালা প্রণয়ন এবং তাবাস্ত বায়নের জন্য ব্যাংকের গ্রাহক সংখ্যা এবং ব্যবসার পরিধি ক্রমে বিস্তার লাভ করছে। 

রেগুলেটরী কমপ্লায়েন্স, টেকসই উন্নয়ন এবং উন্নতর প্রতিযোগিতামূলক সেবার কারণে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংকের খ্যাতি ও সুনাম দিন দিন বিস্তৃত হচ্ছে। বিগতবছরে শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড একাধিক দেশীয় ও আন্তর্জাতিক স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান হতে কাজের স্বীকৃতি স্বরূপএকাধিকপুরস্কার অর্জন করেছে। যুক্তরাজ্যের স্বনামধন্য ইসলামিক ফাইনান্সসিয়াল ইন্টেলিজেন্স সার্ভিস প্রতিষ্ঠান ক্যামব্রিজ আইএফ এ শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংক-কে “থ্রিজিএক্সিলেন্স ইন সাসটেইনেবল প্রাকটিস অ্যাওয়ার্ড-২০২০” এবং“থ্রিজিগ্রীণ চ্যাম্পিয়ন অ্যাওয়ার্ড” এ দুটি ক্যাটাগরীতে পুরস্কার প্রদান করে। এছাড়া, ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টস বাংলাদেশ (আইসিএবি), সাউথ এশিয়ান ফেডারেশন অব অ্যাকাউন্ট্যান্টস (সাফা), ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড সেক্রেটারিজ অব বাংলাদেশ (আইসিএসবি) ও ইনস্টিটিউট অব কস্ট এন্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্ট্যান্টস অব বাংলাদেশ (আইসিএমএবি) শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংক-কে পুরস্কার প্রদান করেছে যা ব্যাংকেরবহু আর্থিক রিপোর্টিং এর পরিচায়ক।

শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংক শুধু মুনাফা অর্জন এর জন্য প্রতিষ্ঠিত হয়নি বরং আন্তরিক গ্রাহক সেবাই ব্যাংকের কাছে মূখ্য। করপোরেট সামাজিক দায় বদ্ধতার (সিএসআর) অংশ হিসেবে ২০০৬ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংক ফাউন্ডেশন। ব্যাংক ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে সমাজের দুঃস্থ ও অসহায় মানুষের মাঝে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবাপ্রদান, বন্যা ও প্রাকৃতিক দুর্যোগ প্রবণ এলাকায় খাদ্য ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ, দরিদ্র ও মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের আর্থিক সহায়তা প্রদান-সহ সব সময় সমাজেরপশ্চাৎপদ মানুষের প্রতি সাহায্যের হাত সম্প্রসারিত করেছে এবং তা অব্যাহত রয়েছে। তাছাড়া সাম্প্রতিক বছর গুলোতে বিশ্বব্যাপী নভেল করোনাভাইরাস এর প্রাদুর্ভাবকালীন সময়ে সমাজের অনগ্রসর জনগোষ্ঠীকে আর্থিক সহায়তা প্রদান সহ বিভিন্ন স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে যা এখনো অব্যাহত আছে।

সোনালীনিউজ/এসআই

Haque Milk Chocolate Digestive Biscuit
Wordbridge School