• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

যুদ্ধের মধ্যেই গ্রেপ্তার রাশিয়ার উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী


আন্তর্জাতিক ডেস্ক এপ্রিল ২৪, ২০২৪, ১১:৪১ এএম
যুদ্ধের মধ্যেই গ্রেপ্তার রাশিয়ার উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী

ঢাকা : দুর্নীতির অভিযোগে রাশিয়ার উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির শীর্ষ তদন্তকারী সংস্থা। ঘুষ নেওয়ার সন্দেহে তাকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) রাশিয়ার উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী তৈমুর ইভানভকে (৪৭) গ্রেপ্তার এবং দুর্নীতির বিষয়ে তদন্তের কথা জানায় রুশ শীর্ষ তদন্তকারী সংস্থা।

বুধবার (২৪ এপ্রিল) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৬ সালে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে নিযুক্ত হওয়া ৪৭ বছর বয়সী তৈমুর ইভানভ দেশটির সামরিক অবকাঠামো প্রকল্পের দায়িত্বে ছিলেন। মূলত অ্যাক্টিভিস্টরা দীর্ঘদিন ধরে রাশিয়ায় কথিত ব্যাপক মাত্রার দুর্নীতির সমালোচনা করে আসছেন।

২০২২ সালে ‘রাশিয়ার দখলে থাকা ইউক্রেনের অঞ্চলগুলোতে নির্মাণ কাজের সময় দুর্নীতির পরিকল্পনায়’জড়িত থাকার জন্য ইভানভকে অভিযুক্ত করেছিল দুর্নীতিবিরোধী ফাউন্ডেশন (এসিএফ)। এই সংস্থাটির প্রতিষ্ঠাতা রাশিয়ার প্রয়াত বিরোধী নেতা আলেক্সি নাভালনি।

এসিএফ জানিয়েছিল যে, ইউক্রেনীয় বন্দরনগরী মারিউপোলের নির্মাণ প্রকল্প থেকে লাভবান হয়েছেন তৈমুর ইভানভ। এই শহরের বেশিরভাগই ইউক্রেনে আগ্রাসনের সময় কয়েক মাস চলা রাশিয়ান বোমা হামলায় ধ্বংস হয়ে গেছে।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাশিয়ার ফৌজদারি দণ্ডবিধির ২৯০ অনুচ্ছেদের ৬ অংশের ধারা অনুযায়ী ইভানভকে আটক করা হয়েছে। যখন অভিযুক্তের ঘুষের পরিমাণ ১০ লাখ রুবল ছাড়িয়ে যায় তখনই এই দণ্ডবিধি প্রযোজ্য হয়।

এই ধরনের অপরাধের ক্ষেত্রে বড় অংকের জরিমানা এবং ১৫ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ডের শাস্তি হয়ে থাকে।

তবে রাশিয়ার এই উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রীর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ ও গ্রেপ্তারে তার প্রতিক্রিয়া কী তা জানানো হয়নি।

উল্লেখ্য, তৈমুর ইভানভ পূর্বে মস্কো অঞ্চলের উপ-প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। তিনি বর্তমান প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগুর ঘনিষ্ঠ সহযোগী ছিলেন বলে জানা যায়।

ইভানভকে গ্রেপ্তারের বিষয় রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন আগে থেকেই জানেন বলে জানিয়েছেন ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ।

এমটিআই

Wordbridge School
Link copied!