• ঢাকা
  • শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৭

আত্মনির্ভরশীল জাতি বিনির্মাণে আমরা অনেকাংশে সফল


নিজস্ব প্রতিবেদক জানুয়ারি ২৮, ২০২১, ০২:২২ পিএম
আত্মনির্ভরশীল জাতি বিনির্মাণে আমরা অনেকাংশে সফল

ঢাকা: ‘আন্তঃরাষ্ট্র সুসম্পর্ক বজায় রেখে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। আজকে কেউ বলতে পারবে না, বাংলাদেশের কোনো দেশের সঙ্গে কোনো বৈরী সম্পর্ক আছে। আমরা সবার সঙ্গে একটা বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক নিয়ে চলছি। আমরা আত্মনির্ভরশীল একটা জাতি হিসেবে নিজেদের গড়ে তোলার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি এবং অনেকাংশে আমরা সফল হয়েছি।’কথাগুলো বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, স্বাধীনতাকে অর্থবহ করে সমৃদ্ধ দেশ গড়ার কাজ করছে সরকার।  

বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) সকালে ভিডিও কনফারেন্সে মিরপুর সেনানিবাসে ডিফেন্স সার্ভিসেস কমান্ড অ্যান্ড স্টাফ কলেজের (ডিএসসিএসসি) ২০২১ কোর্সের গ্র্যাজুয়েশন অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন তিনি। এ সময় সশস্ত্র বাহিনীকে প্রশিক্ষণলব্ধ জ্ঞান দেশের স্থিতিশীলতায় কাজে লাগানোর আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

গ্র্যাজুয়েটদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজকে আপনাদের জীবনের একটি বিশেষ দিন। এ দিনটির জন্য দীর্ঘ ১১ মাস আপনাদের কঠোর পরিশ্রম ও অধ্যবসায় করতে হয়েছে। আপনারা সমর জ্ঞান, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বিষয়ে উচ্চতর জ্ঞান লাভ করেছেন। আমার বিশ্বাস এ প্রশিক্ষণ লব্ধ জ্ঞান, আপনাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব দক্ষতার সঙ্গে পালন ও নানা চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সহায়ক হবে। কারণ মনে রাখতে হবে, পৃথিবীটা একটা ভিলেজ। এখানে কেউ এককভাবে চলতে পারে না। সবাইকে নিয়ে চলতে হয়। এজন্য জ্ঞানের পরিধি অনেক বিস্তৃত করতে হয়।

শেখ হাসিনা বলেন, এ প্রতিষ্ঠানের গ্র্যাজুয়েটগণ তাদের অর্জিত জ্ঞান, ইচ্ছাশক্তি ও অঙ্গীকারের মাধ্যমে দেশকে একটি স্থিতিশীল, টেকসই, আত্মনির্ভরশীল, সর্বোপরি গৌরবময় অবস্থানে নিয়ে যাবে। মনে রাখতে হবে, এদেশ লাখো শহীদদের রক্তের বিনিময়ে স্বাধীন করেছি। আমরা দেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করতে চাই।

রোহিঙ্গা বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা মিয়ানমারের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছি যাতে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে তারা তাদের নাগরিকদের ফিরিয়ে নিয়ে যায়। একটা বন্ধুত্বসুলভ মনোভাব নিয়েই আমরা এ কাজ করে যাচ্ছি। তবে যারা অন্যায় করছেন, আমরা সেটা নিশ্চয় বলব।’

সোনালীনিউজ/আইএ