• ঢাকা
  • রবিবার, ১৯ মে, ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ, ভরদুপুরে রাতের মতো অন্ধকার নামবে যে ৩ দেশে


বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক এপ্রিল ৭, ২০২৪, ০৩:১২ পিএম
পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ, ভরদুপুরে রাতের মতো অন্ধকার নামবে যে ৩ দেশে

ঢাকা : আগামীকাল সোমবার (৮ এপ্রিল) বিরল সূর্যগ্রহণের সাক্ষী হতে যাচ্ছে বিশ্ব। এদিন ভরদুপুরে বিরল মহাজাগতিক ঘটনার সময় চাঁদের ছায়া সূর্যকে প্রায় চার মিনিট সম্পূর্ণ ঢেকে রাখবে।

আর এই নির্দিষ্ট সময়ের জন্য মেক্সিকো, যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডায় সূর্যকে পুরোপুরি ঢেকে ফেলবে চাঁদ। ফলে দিন হবে রাতের মতো অন্ধকার। ইতোমধ্যে বিরল এ সূর্যগ্রহণ দেখতে প্রস্তুত এসব দেশের কোটি মানুষ।

রোববার (৬ এপ্রিল) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানায় ব্রিটিশ গণমাধ্যম গার্ডিয়ান।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বেলা ১টা ৩০ মিনিটে শুরু হয়ে ধীরে ধীর সূর্যকে ঢাকতে থাকবে চাঁদ। তবে পূর্ণগ্রাস শেষ হবে ৩টা ৩৫ মিনিটে। প্রায় চার মিনিট স্থায়ী হতে পারে মহাজাগতিক ঘটনাটি। এ ধরনের বিরল আরেকটি ঘটনা দেখতে মানবজাতিকে অপেক্ষা করতে হবে ২০৪৪ সাল পর্যন্ত।

যুক্তরাষ্ট্রে সবশেষ সূর্যগ্রহণ ছিল ২০১৭ সালে। মাত্র সাত বছরের ব্যবধানে আরেকটি পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ অস্বাভাবিক বলছেন বিশেষজ্ঞরা। ২০১৭ এর আগে সুর্যগ্রহন ১৯৭৯ সালে ঘটেছিল এবং যুক্তরাষ্ট্রে পরবর্তীটি সূর্যগ্রহন দেখা যাবে ২০৪৪ সালের আগস্টের পড়ে।

পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ কি : সূর্যের পূর্ণগ্রাস গ্রহণ ঘটে যখন সূর্য, পৃথিবী এবং চাঁদ এমন অবস্থানে আসে যখন চাঁদ সূর্যের আলোকে সম্পূর্ণভাবে ঢেকে দেয়। তখন কয়েক সেকেন্ডের জন্য (কখনও কখনও এমনকি কয়েক মিনিটের জন্যও) আকাশ এতই অন্ধকার হয়ে যায় যে মনে হয় সেটা রাতের আকাশ।

নাসার কথায়, ‘মহাজাগতিক একটা সমন্বয় ঘটলেই একমাত্র সূর্যের পূর্ণ গ্রহণ সম্ভব হয়": সূর্য চাঁদের তুলনায় ৪০০ গুণ চওড়া এবং চাঁদ পৃথিবী থেকে যত দূরে, সূর্য তার চেয়ে আরও ৪০০ গুণ বেশি দূরে।’

পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ দেখার প্রস্তুতি : এবারের পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণের জন্য প্রস্তুত মেক্সিকো, যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডাবাসী। এমনকি বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকেও অনেকে এই পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ দেখার জন্য নির্দিষ্ট স্থানগুলোতে হাজির হচ্ছেন।

বিশেষজ্ঞদের ধারণা, সোমবার উত্তর আমেরিকার লাখের বেশি মানুষ জীবনের অন্যতম সেরা একটি অভিজ্ঞতা অর্জনে বেরিয়ে পড়বেন। যেসব এলাকা থেকে ভালোভাবে পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে, তাঁরা সেসব এলাকায় চলে যাবেন।

এদিকে, প্রায় সাড়ে চার দশক পর প্রথমবারের মতো বিরল সূর্যগ্রহণের সাক্ষী হতে যাচ্ছে কানাডাবাসী। পূর্ণাঙ্গ এই সূর্যগ্রহণ দেখতে দেশটির নায়াগ্রা জলপ্রপাতের কাজে জড়ো হতে পারে অন্তত ১০ লাখ দর্শনার্থী।

তবে বিরল সূর্যগ্রহণ দেখা নিয়ে সতর্ক করেছেন বিশেষজ্ঞরা। পূর্ণ এই সূর্যগ্রহণ খালি চোখে দেখতে নিষেধ করা হয়েছে। কারণ এক্ষেত্রে চোখের ক্ষতি হতে পারে। এজন্য বিশেষ ধরনের গ্লাস দিয়ে এটি দেখার আহ্বান জানানো হয়েছে। সাধারণ কোনো সানগ্লাস এ ক্ষেত্রে নিরাপদ হবে না। এজন্য বিশেষভাবে তৈরি সানগ্লাস ব্যবহার করতে হবে।

এমটিআই

Wordbridge School
Link copied!