• ঢাকা
  • রবিবার, ২১ জুলাই, ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১

দাপুটে জয়ে টানা দ্বিতীয়বার কোপার ফাইনালে আর্জেন্টিনা


নিজস্ব প্রতিবেদক জুলাই ১০, ২০২৪, ০৮:১৪ এএম
দাপুটে জয়ে টানা দ্বিতীয়বার কোপার ফাইনালে আর্জেন্টিনা

ঢাকা : কোপা আমেরিকার শিরোপা ধরে রাখার পথে আরেক ধাপ এগিয়ে গেল আর্জেন্টিনা। লিওনেল মেসি ও হুলিয়ান আলভারেসের গোলে কানাডাকে হারিয়ে জায়গা করে নিল ফাইনালে।

বাংলাদেশ সময় বুধবার (১০ জুলাই) সকালে প্রথম সেমি-ফাইনালে ২-০ গোলে জিতেছে লিওনেল স্কালোনির দল।

প্রথমার্ধে আলভারেস আর্জেন্টিনাকে এগিয়ে নেওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে আসরে নিজের প্রথম গোলে ব‍্যবধান দ্বিগুণ করেন মেসি।

গতিময় ফুটবলে শুরুতে আর্জেন্টিনাকে বেশ চাপে রাখে কানাডা। আনহেল দি মারিয়া ও আলভারেসকে শুরুর একাদশে ফেরানো আর্জেন্টিনা ভুগছিল তাল মেলাতে।

প্রথম সুযোগ পায় কানাডাই। পঞ্চম মিনিটে ডি-বক্সে ঢুকে বাম পাশ থেকে নেওয়া জ্যাকব শ্যাফলবার্গের শট চলে যায় বারের ওপর দিয়ে। দুই মিনিট পর দ্রুত গতির আক্রমণে প্রায় একই জায়গায় বল পান শ্যাফলবার্গ। এবার তার গড়ানো শট দূরের পোস্ট ঘেঁষে বাইরে চলে যায়।

দ্বাদশ মিনিটে নিজেদের প্রথম বড় সুযোগ পায় আর্জেন্টিনা। ডান পাশ থেকে দি মারিয়ার পাসে বল পেয়ে যান মেসি। ডি-বক্সের বাইরে থেকে তার বাম পায়ের শট বেরিয়ে যায় পোস্ট ঘেঁষে!

কানাডার দুটি ব‍্যর্থ প্রতি আক্রমণের পর ২৩তম মিনিটে এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা। মাঝমাঠ থেকে রদ্রিগো দে পলের থ্রু বল দারুণ প্রথম ছোঁয়ায় নিয়ন্ত্রণে নেন আলভারেস। চ‍্যালেঞ্জ জানাতে আসা ডিফেন্ডারকে এড়িয়ে ঠান্ডা মাথার ফিনিশিংয়ে তিনি খুঁজে নেন জালের ঠিকানা।

চলতি কোপা আমেরিকায় দ্বিতীয় ও সবমিলিয়ে আর্জেন্টিনার জার্সিতে আলভারেসের এটি নবম গোল।

বিশ্বকাপ ও কোপা আমেরিকার সেমি-ফাইনালে গোল করা আর্জেন্টিনার দ্বিতীয় ও সবমিলিয়ে চতুর্থ ফুটবলার আলভারেস। ২০২২ বিশ্বকাপেও শেষ চারে গোল করেছিলেন তিনি। এর আগে ২০০৭ ও ২০১৬ কোপা এবং ২০২২ বিশ্বকাপের ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে গোল করেন মেসি।

২৬তম মিনিটে বাম পাশে ফ্রি-কিক পায় কানাডা। আলফুঁস ডেভিসের বাম পায়ের ক্রসে হেড করতে পারেনি কেউ।

৩৪তম মিনিটে ডান পাশ থেকে বারের ওপর দিয়ে মারেন দি মারিয়া। পরের মিনিটে মেসির পাসে তাগলিয়াফিকোর শট ডিফেন্ডারের গায়ে লেগে ফিরে আসে। পরে সেই কর্নার থেকে হেড লক্ষ্যে রাখতে পারেননি লিসান্দ্রো মার্তিনেস।

৪৪তম মিনিটে আরেকটি সুযোগ পান মেসি। ডান পাশ থেকে দি মারিয়ার পাসে বল ধরে ডি-বক্সে ঢুকে ডান পায়ের শট নেন আর্জেন্টিনা অধিনায়ক। এবারও অল্পের জন্য পোস্ট ঘেঁষে চলে যায় বল।

যোগ করা সময়ের প্রথম মিনিটে ডি-বক্সের মুখে অনেকটা ফাঁকায় পান মেসি। কিন্তু তার চিপ শট চলে যায় ক্রসবারের ওপর দিয়ে। পরের মিনিটে জন্সটনের থ্রো-ইন থেকে আচমকা শট নেন ডেভিড। কাছ থেকে ঠকিয়ে দেন তৎপর আর্জেন্টিনা গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্তিনেস।

দ্বিতীয়ার্ধে কিছুটা কমে আর্জেন্টিনার আক্রমণের ধার। তবে প্রথম ভালো সুযোগেই ব‍্যবধান বাড়ায় তারা। জটলা থেকে বল ক্লিয়ার করার চেষ্টায় ডি-বক্সের মাথায় এনসো ফের্নান্দেসকে দিয়ে দেন কানাডার এক ডিফেন্ডার। ফের্নান্দেসের তীব্র গতির শটে খুব কাছ থেকে বাম পা ছুঁয়ে একটু দিক পাল্টে বল জালে পাঠান মেসি।

চলতি কোপা আমেরিকায় এটিই আর্জেন্টিনা অধিনায়কের প্রথম গোল। সবমিলিয়ে মহাদেশীয় শ্রেষ্ঠত্বের টুর্নামেন্টে ১৪তম। এনিয়ে কোপা আমেরিকার ভিন্ন ৬টি আসরে জালের দেখা পেলেন আর্জেন্টিনার হয়ে সর্বোচ্চ ১০৯ গোলের মালিক।

৬১তম মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়ানোর সুযোগ ছিল আলভারেসের সামনে। দি মারিয়ার থ্রু বল ডি-বক্সের কাছে ফাঁকায় পেয়ে যান তরুণ ফরোয়ার্ড। কিন্তু তিনি শট নেন একদম গোলরক্ষক ম্যাক্সিম ক্রেপু বরাবর।

পরের মিনিটে আক্রমণে ওঠে কানাডা। আলি আহমেদের পাস থেকে পাওয়া বল বারের ওপর দিয়ে মারেন ইসমাইল কোনে। ৭৫তম মিনিটে ফের আর্জেন্টিনার রক্ষণ ভীতি জাগায় তারা। তবে জটলার মধ্যে সুবিধা করতে পারেনি অতিথি দলটি।

শেষ দশ মিনিট উজ্জীবিত ফুটবল খেলে গোলের জন্য মরিয়া কানাডা। ৮৯তম মিনিটে বিপজ্জনক জায়গা থেকে তানি ওলুয়াসেইর পায়ের শট দারুণ ক্ষিপ্রতায় ঠেকান এমিলিয়ানো। পরের মিনিটে অল্পের জন্য বাইরে দিয়ে যায় তানির হেড।

জাল অক্ষত রেখে ফাইনালে ওঠার আনন্দে মাতে আর্জেন্টিনা।

বাংলাদেশ সময় আগামী সোমবার সকালে শিরোপা নির্ধারণী ম‍্যাচে উরুগুয়ে কিংবা কলম্বিয়ার বিপক্ষে খেলবে গত আসরের চ‍্যাম্পিয়নরা। হেরে যাওয়া দলের বিপক্ষে এর আগের দিন তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম‍্যাচে মুখোমুখি হবে কানাডা।
 

এমটিআই

 

Wordbridge School
Link copied!