• ঢাকা
  • সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯

স্বামী জোরপূর্বক শারীরিক সম্পর্ক করতেন: বাঁধন


বিনোদন ডেস্ক  ডিসেম্বর ৫, ২০২২, ১২:১৯ পিএম
স্বামী জোরপূর্বক শারীরিক সম্পর্ক করতেন: বাঁধন

ঢাকা: বিয়ের পর স্বামী জোরপূর্বক শারীরিক সম্পর্ক করতেন বলে দাবি করেছেন আজমেরি হক বাঁধন। ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকায় দেয়া সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন এই অভিনেত্রী।

আরো পড়ুন: ‘শাকিব-অপুর সম্পর্কের কথা জানলে তাকে বিয়ে করতাম না’

বাঁধন বলেন, ‘আমার প্রাক্তন শ্বশুরবাড়ির লোকজন পড়াশোনা করতে দিতেন না। বন্ধুদের সঙ্গে যোগাযোগ পুরো ছিন্ন করে দিতে বাধ্য করেন। আমি মেনে নিয়েছিলাম। ভেবেছিলাম, এভাবেই হয়তো থাকতে হয়। অনেকেই উপদেশ দিয়েছিলেন, সব সমস্যার সমাধান হলো বাচ্চা। কিন্তু কাউকে বোঝাতে পারিনি, আমি বৈবাহিক ধর্ষণের শিকার।’

আরো পড়ুন: প্রেম নিয়ে আবারও আলোচনায় শ্রাবন্তী

২০১০ সালের ৮ সেপ্টেম্বর হঠাৎ করেই ব্যবসায়ী মাশরুর সিদ্দিকীর সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন বাঁধন। পারিবারিকভাবেই বিয়ের পিঁড়িতে বসেছিলেন তিনি। এরপর সংসার নিয়ে ব্যস্ত থাকায় অভিনয় থেকে দূরে ছিলেন।

আরো পড়ুন: ডাইরেক্ট অ্যাটাক নিয়ে ফিরছেন পপি

সংসার জীবনে সুখী না হওয়ায় ২০১৪ সালের ১০ আগস্ট বিবাহ বিচ্ছেদের আবেদন করেন বাঁধন। ওই বছরের ২৬ নভেম্বর মাশরুর সিদ্দিকীর সঙ্গে তার আনুষ্ঠানিক বিচ্ছেদ হয়। তবে ডিভোর্স সার্টিফিকেটে বিচ্ছেদের তারিখ হিসেবে ১০ আগস্টকেই গণ্য করা হয়েছে।

আরো পড়ুন: গোল্ডেন বুট নয়, কাতারে এসেছি বিশ্বকাপ জিততে

এদিকে বিচ্ছেদের পর ফের অভিনয়ে ফেরেন বাঁধন। তার অভিনীত ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ সিনেমাটি ৭৪তম কান চলচ্চিত্র উৎসবের আঁ সার্তে রিগা বিভাগে প্রতিযোগিতায় নির্বাচিত হওয়ার পর প্রদপ্রদীপের আলোয় আসেন তিনি। এরপর টলিউডের ওয়েব সিরিজ ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি’তে অভিনয়ের সুযোগ পান। সেখান থেকে পা রাখেন বলিউডে। অভিনয় করেন ‘খুফিয়া’ শিরোনামের ছবিতে।

আরো পড়ুন: ফের আলোচনায় মৌসুমী

সোনালীনিউজ/এম

 

Wordbridge School