• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১

রাশিয়ার দখলকৃত গ্রাম পুনরুদ্ধারের দাবি ইউক্রেনের


আন্তর্জাতিক ডেস্ক সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২৩, ১১:৪৮ এএম
রাশিয়ার দখলকৃত গ্রাম পুনরুদ্ধারের দাবি ইউক্রেনের

ঢাকা : রাশিয়ার সেনাদের হটিয়ে দেশের পূর্বাঞ্চলে কৌশলগত গুরুত্বপূর্ণ একটি গ্রাম দখলে নেওয়ার দাবি করেছে ইউক্রেন।

দেশটি বলেছে, পূর্বাঞ্চলীয় ফ্রন্টলাইনের অন্যতম প্রধান গ্রাম ক্লিশচিভকা পুনরায় দখল করেছে ইউক্রেনীয় বাহিনী। বাখমুতের দক্ষিণে অবস্থিত এই গ্রামটি কৌশলগতভাবে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এএফপি।

যুদ্ধক্ষেত্রে এই ধরনের বিজয় বা সাফল্য অর্জন ইউক্রেনের জন্য বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ। কারণ প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি আগামী সপ্তাহে ওয়াশিংটনে সফরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন এবং সেখানে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দেওয়ার পাশাপাশি কিয়েভের জন্য সমর্থন আদায়ের চেষ্টা চালাবেন। মূলত ইউক্রেনের জন্য আরও সমর্থন জোগাড় করার ক্ষেত্রে পশ্চিমা সহায়তায় পুষ্ট ইউক্রেনীয় বাহিনীর পাল্টা আক্রমণে যে সফলতা আসছে, সেটি দেখানো কিয়েভের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি বাখমুতের কাছে যুদ্ধরত সৈন্যদের প্রশংসা করেছেন এবং যারা রাশিয়াকে হটিয়ে ক্লিশচিভকাকে পুনরুদ্ধারের কাজে যুক্ত ছিল তাদেরও আলাদা করে সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া ভাষণে প্রশংসা করেন।

এএফপি বলছে, ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়ার সামরিক বাহিনী আক্রমণ শুরু করার আগে ক্লিশচিভকা গ্রামটি কয়েকশ লোকের আবাসস্থল ছিল। তবে চলতি বছরের জানুয়ারিতে রাশিয়ান সৈন্যরা এই এলাকাটি দখল করে নেয়। এই গ্রামটি দখলের ফলে ইউক্রেনীয় বাহিনী রাশিয়ান বাহিনীর দিকে আরও সহজে অগ্রসর হতে এবং আরও ভালোভাবে গোলাবর্ষণ করতে পারবে।

এমটিআই

Wordbridge School
Link copied!