• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই, ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১

অবশেষে ভোটের রাজনীতিতে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী, লড়বেন রাহুলের আসনে


আন্তর্জাতিক ডেস্ক জুন ১৮, ২০২৪, ১০:২৭ পিএম
অবশেষে ভোটের রাজনীতিতে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী, লড়বেন রাহুলের আসনে

ঢাকা : ভারতের প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর বোন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী অবশেষে সংসদীয় রাজনীতিতে আসছেন। লোকসভা ভোটে রাহুলের জিতে আসা কেরালার ওয়ানাড় আসন থেকে প্রথম ভোটের দৌড়ে নামছেন প্রিয়াঙ্কা।

ভারতে লোকসভা নির্বাচনের আগে থেকেই জোর জল্পনা ছিল সংসদীয় রাজনীতিতে প্রিয়াঙ্কার অভিষেক নিয়ে। 

সোমবার (১৭ জুন) কংগ্রেসের ঘোষণার মধ্য দিয়ে সে জল্পনার অবসান হল।

কংগ্রেস এদিন জানায়, রাহুল রায়বেরেলি আসনটি ধরে রাখছেন, আর ওয়েনাড় আসনটি ছেড়ে দিচ্ছেন। তার ছেড়ে দেওয়া এ আসনে উপ-নির্বাচনী ভোটে এবার লড়বেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী।

কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী এবছরের লোকসভা নির্বাচনে উত্তর ভারতের রায়বেরেলি আর কেরালার ওয়েনাড়- দুই আসনে দাঁড়িয়ে দুটোতেই বিপুল ভোটে জয় পেয়েছিলেন। দু’টি আসনে জয় পাওয়ায় নিয়ম অনুযায়ী তাকে এখন পার্লামেন্টে অধিবেশন শুরুর আগেই একটি আসন ছেড়ে দিতে হচ্ছে।

কোন আসনটি রাহুল গান্ধী নিজের কাছে রাখবেন আর কোনটি ছাড়বেন তা নিয়ে এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে জল্পনা-কল্পনা হয়েছে। অবশেষে সোমবার সিদ্ধান্ত আসে।

ভোটে প্রিয়াঙ্কার দাঁড়ানোর অর্থ হল শেষমেশ নির্বাচনে নেমে পড়লেন তিনি। মা সোনিয়া বা ভাই রাহুল গান্ধীর হয়ে নির্বাচনী প্রচারে বহু বছর ধরে কাজ করে আসলেও পাঁচ বছর আগে সক্রিয় রাজনীতিতে আসেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ভাদরা।

২০১৯ সালের জানুয়ারিতে কংগ্রেস প্রিয়াঙ্কাকে সাধারণ সম্পাদকের পদে বসানোর পর তিনি কয়েকটি রাজ্য নির্বাচনে দলের প্রচারের দেখাশুনা করে আসছিলেন। তার সক্রিয় রাজনীতির সেটাই ছিল শুরু। তবে কখনও ভোটে লড়েননি তিনি।

এবার ওয়ানাড়ের ভোটে প্রিয়াঙ্কা জয় পেয়ে লোকসভায় গেলে নতুন ইতিহাস তৈরি হবে। এই প্রথম গান্ধী পরিবারের তিন সদস্য একই সময় সংসদে থাকবেন।

রায়বেরেলি ও ওয়ানাডের সাংসদ হিসাবে লোকসভায় থাকবেন রাহুল ও প্রিয়ঙ্কা। অন্যদিকে, রাজ্যসভায় থাকবেন তাদের মা সোনিয়া গান্ধী।

তবে ওয়ানাড়ে উপনির্বাচনের তারিখ এখনও ঘোষণা হয়নি। প্রিয়াঙ্কা বলেছেন, এই নির্বাচন নিয়ে তিনি মোটেও নার্ভাস নন। বরং ওয়ানাড়ের প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ পেলে তিনি খুশিই হবেন।

সেখানকার মানুষকে রাহুলের অভাব বুঝতে দেবেন না জানিয়ে প্রিয়াঙ্কা বলেছেন, তিনি কঠোর পরিশ্রম করবেন এবং সবাইকে খুশি রাখার যথাসাধ্য চেষ্টা করবেন। ভাল একজন প্রতিনিধিও হবেন।

কংগ্রেসকে নিয়ে প্রতিবেদন লিখে আসা প্রবীণ সাংবাদিক হেমন্ত আত্রি বিবিসি-কে বলেছেন, কংগ্রেসের প্রিয়াঙ্কাকে ভোটে দাঁড় করানোর সিদ্ধান্ত অপ্রত্যাশিত নয়। এবারের লোকসভা নির্বাচনের শুরু থেকেই এটি দলের কৌশল ছিল।

প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর ওয়েনাড় আসন থেকে উপনির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সিদ্ধান্তকে কড়া ভাষায় সমালোচনা করেছে ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) শিবির।

বিজেপি নেতা শেহজাদ পুনাওয়ালা বলেন, “কংগ্রেস কোনও দল নয়, এটি একটি পারিবারিক সংগঠন।” কংগ্রেসের‘বংশ পরম্পরাররাজনীতি করারঅভিযোগ তুলেনিন্দা জানিয়েছেন তিনি।

এমটিআই

Wordbridge School
Link copied!